তাহলে এবার সত্যিই বন্ধ হবে মদের দোকান?, মদ নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলো

লকডাউনের তৃতীয় পর্বের মধ্যেই সোমবার দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মদের দোকান খোলা হয়েছিল। যদিও চড়া দাম, কিন্তু ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।লকডাউনে দেশের সমস্ত কিছু বন্ধ রয়েছে। কিন্তু মদের দোকান খোলা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই সুরাপ্রেমীদের জিজ্ঞাস্য ছিল। তাই শুক্রবার দেশের শীর্ষ আদালতের তরফে সরাসরি জানিয়ে দেওয়া হল লকডাউনে মধ্যেই খোলা থাকবে মদের দোকান। কিন্তু যেহেতু করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রেহাই পেতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কথা বলা হয়েছে তাই হোম ডেলিভারি নিয়ে এখনও অবধি সুপ্রিম কোর্ট কিছুই জানায়নি।

লকডাউনে যেহেতু জরুরি পরিষেবা ছাড়া সবটাই বন্ধ তাই করোনা সংক্রমনের চিন্তা এড়িযে যেভাবে সোমবার মদের দোকানে লাইন লেগেছিল তাতে কিন্তু এককথায় চিন্তা হওয়ারই কথা। তাই তো দেশের শীর্ষ আদালতে লকডাউনের মধ্যে মদের দোকান খোলা নিয়ে ও মদ বিক্রি নিয়ে নিষেধাজ্ঞা জারির আর্জি জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিচারপতি অশোক ভূষণ সহ বিচারপতি সঞ্জয় কিষণ কৌল এবং বিচারপতি বিআর গভাই বিষয়টি শোনেন।

এরপরেই জানানো হয়’সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য মদের পরোক্ষ বিক্রি বা হোম ডেলিভারির বিষয়টি রাজ্যগুলির বিবেচনা করা প্রয়োজন। তবে এই বিষয়ে আমরা কোনও নির্দেশ দেব না।’তবে মামলাকারীদের আইনজীবি মদের দোকান খোলা নিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারে জোর দিয়ে জানান দোকানের সামনে যেভাবে ভিড় জমেছে তাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা আসম্ভব। তাই প্রতিটি রাজ্যকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে একটি সুস্পষ্ট বক্তব্য পাঠানো প্রয়োজন বলেও দাবি করেন মামলাকারীর আইনজীবী।

এমনিতেই সোমবার থেকে মদের দোকান খোলার পরে সামাজিক মাধ্যমেও যারা চড়া দামে মদ কিনছেন তাঁদের যেন কেন্দ্রীয় সরকার বিনামূল্যে রেশন না দেন, এই দাবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছিলেন অনেকেই।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন