এতদিনে মুখ খুললেন, স্ত্রীকে কি বললেন তিনি, দেখুন নিখিলের ইনস্টাগ্রাম পোস্ট

সোশ্যাল মিডিয়াতে চোখ রাখলেই দেখা যাচ্ছে নুসরাতের জীবনের উপর বয়ে চলা ঝড়। তখনো তার স্বামী পোস্ট করছেন কোন কথা, কখনোবা অভিনেত্রী নিজে,আবার কখনো অভিনেত্রী সহ অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। খবরের শিরোনামে এই তিনটি নাম বেশ কিছুদিন ধরে ঘুরপাক খাচ্ছে। এখনো নির্দিষ্ট করে কোন কারণ শোনা যায়নি নুসরাত জাহান এবং তার স্বামীর বিচ্ছেদের। তবে সম্পর্ক যে আগের মতো ভালো নেই, তা বহুবার প্রমাণিত হয়েছে এর আগে।

খুব সম্ভবত রাজস্থান ঘুরে আসার পর থেকেই শুরু হয়ে যায় নুসরাতের জীবনে দ্বন্দ্ব।যশ দাশগুপ্ত এবং তার ঘনিষ্ঠ হওয়া নিয়ে আপত্তি ছিল নুসরাতের স্বামী নিখিলের।কিন্তু তাকে পরোয়া না করে নিজের জীবনে খোলামেলা ভাবে সকলের সাথে মিশেছেন নুসরাত।

কিছুদিন আগে নিখিল জৈন একটি ছবি পোস্ট করেন যেখানে বোঝা গিয়েছিল যে তিনি কলকাতার বাইরে কোথাও ঘুরতে যাচ্ছেন। এই পোস্ট দেখে অনেকেই কমেন্ট করেছিলেন যে, তিনি কোথায় যাচ্ছেন বা কি বৃত্তান্ত।শুক্রবার ইনস্টাগ্রামে আবারো একটি ছবি পোস্ট করতে দেখা গেল তাকে।কোন পাহাড়ি এলাকায় চোখে রোদ চশমা লাগিয়ে হাসিমুখে সেলফি তুলছেন তিনি।

সম্ভবত এটি কোনো থ্রো ব্যাক পিকচার, অর্থাৎ অনেক আগের তোলা কোনো ছবি। তবে ছবির থেকেও বেশি নজর কেড়েছে তার ক্যাপশন। সেখানে লেখা রয়েছে যে, জীবনটা অনেকটা বুমেরাংয়ের মত। তুমি যা দেবে,তাই ফেরত পাবে।

কিন্তু এই কথা লেখার আসল মানে কি?কথা কি তাহলে নুসরাত কে উদ্দেশ্য করে লেখা হয়েছে? কথার অন্তর্নিহিত মানে কি? এই সমস্ত প্রশ্নের সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছে নিখিল জৈনের পোস্ট করা এই ছবি।এর আগেও নুসরাত জাহানের বোনের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করতে দেখা গেল নিখিলকে। সেই ছবি দেখে স্পষ্ট যে, স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক না থাকলেও তার পরিবারের সঙ্গে দিব্যি সম্পর্ক রয়েছে নিখিলের।