বিয়ের কিছুদিন পরেই ত্বকের বি’র’ল রো’গে আ’ক্রা’ন্ত ইয়ামি গৌতম, এই রো’গে’র নেই চিকিৎসা

বলিউডের ফেয়ার এন্ড লাভলী অভিনেত্রী ইয়ামি গৌতম। কিছুদিন আগেই বিবাহ বন্ধনে বাঁধা পড়েছেন তিনি। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না সেই কোন ছোটবেলা থেকে তার শরীরে বাসা বেঁধেছে একটি নাছোড়বান্দা রোগ। এই রোগের প্রভাব সরাসরি অভিনেত্রীর ত্বকের উপর পড়েছে। ডাক্তারি ভাষায় যাকে বলা হয়, কেরাটিসিস পিলারিস”।

এই রোগ হলে রোগীর ত্বকের বেশ কিছু অংশ শুষ্ক হয়ে যেতে থাকে। মাঝে মাঝে ছোট ছোট ফুসকুড়ি হতে দেখা যায়। এতদিন পর নিজের ত্বকের গোপন সমস্যার কথা সকলের সামনে বললেন ইয়ামি গৌতম। নেটিজেনদের সঙ্গে ভাগ করে দিলেন নিজের রোগের কথা।

সম্প্রতি বেশকিছু ফটোশুটের ছবি ইনস্টাগ্রামের শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, এই সমস্যার জন্য ত্বকের কিছু অংশ অত্যাধিক শুষ্ক হয়ে পড়ে, সেখানে দেখা যায় ছোট ছোট ফুসকুড়ি। তিনি আরো জানিয়েছেন, ছবিগুলোকে ফটোশুটের পর ত্বকের সমস্যা লুকোতে পাঠানো হচ্ছিল পোস্ট প্রোডাকশনের জন্য, কিন্তু ইয়ামি নাকচ করে দেয়।

এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক, এই রোগটি আসলে কি? এটি এমন একটি ত্বকের অসুখ, যা হলে ত্বকের খসখসে ভাব দেখা যায়। পাশাপাশি ছোট ছোট ফোলা ভাব দেখা যায় ত্বকে। এই সমস্যা সাধারণত হাতের উপরের অংশে, থাইতে অথবা চিবুকে দেখতে পাওয়া যায়। ছবি পোস্ট করে ইয়ামি লিখেছেন,”নমস্কার আমার ইনস্টাগ্রামের পরিবার।

সম্প্রতি কিছু ফটোশুটের জন্য শুটিং করেছিলাম। কিন্তু তারা যখন ছবিগুলি পোস্ট করতে যাচ্ছেন, ঠিক সেই সময় আমার ত্বকের কেরাটোসিস পিলারিস সমস্যার কথা জানান তারা আমায়।

প্রথমে অস্বস্তি বোধ হলেও আমি জানি এটা আমাকে মেনে নিতে হবে। এখন আমি সাবলীলভাবে আমার সমস্যার কথা সকলের কাছে শেয়ার করতে পারি। যারা কোনদিন এই সমস্যার কথা আগে শোনেননি, তাদের জানিয়ে রাখি, এই সমস্যায় ত্বকে ছোট ছোট ফোলা ফোলা জিনিস দেখা যায়। এই সমস্যা আমার অনেক ছোটবেলা থেকেই দেখা গেছে। আর এখনও এই সমস্যা আমার ত্বকে রয়েছে।