মাছ-মাংস ছাড়লেন শিল্পা, হলেন সপরিবারে সম্পূর্ন নিরামিষ ভোজী, কিন্তু কেন ?

জন্মসূত্রে ম্যাঙ্গালোরের বাসিন্দা ছিলেন শিল্পা শেট্টি। তাই ছোট্ট থেকে মাছ-মাংসের প্রতি নিবিড় ভালোবাসা ছিল তাঁর। তা সত্ত্বেও তিনি আমি সুজি থেকে নিরামিষের পদার্পণ করেছেন। কিন্তু কেন এই পরিবর্তন? এই বিষয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি? ছেলে ভিয়ানকে নিয়ে একটি ফার্মহাউসে যাওয়ার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন বলি অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি। সেখানেই জানালেন, তিনি এবং তাঁর পরিবার পুরোপুরি নিরামিষাশী হয়ে গিয়েছে। নিজের শরীর এবং প্রকৃতি ভারসাম্য রক্ষার্থে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই বলে অভিনেত্রী।

ধীরে ধীরে নিরামিষ খাবারের পরিমাণ বাড়িয়ে তিনি নিরামিষ এর ব্যাপারে একটা টান তৈরি করেন প্রথমে। তারপর আস্তে আস্তে তিনি পুরোপুরি নিরামিষভোজী হয়ে যান । এই বিষয়ে তিনি কিন্তু এক আনা পুত্র ভিয়ানও এ ব্যাপারে সারাক্ষণ থেকেছে মায়ের পাশে। আপন করে নিয়েছে নতুন খাদ্যাতালিকাকে।

নিরামিষ খাদ্যাভ্যাসের ব্যাপারে তিনি পড়াশোনা করেছেন এর পাশাপাশি চিকিৎসকদের সাথে আলোচনাও করেছেন। তিনি জেনেছেন হার্ট ফুসফুস এবং অন্ত্রের রোগের আশঙ্কা কমানোর জন্য নিরামিষ খাবার এক বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও শরীরে এনার্জি বাড়ে এবং মেদ কমে নিরামিষ খাওয়ার মাধ্যমে।