এখনো না’তি’র মুখ দেখতে পাননি শর্মিলা! শা’শু’ড়ির থেকে এখনো দ্বি’তী’য় সন্তানকে দূরে রে’খে’ছেন করিনা

করোনার মধ্যেই সেইফ এবং করিনার সুখী গৃহকোণে তাদের দ্বিতীয় সন্তানের আগমন ঘটেছে। তবে সেইফ এবং করিনার প্রথম সন্তান তৈমুরকে নিয়ে পাপারাজ্জিরা যে বাড়াবাড়ি শুরু করেছিল তার থেকে শিক্ষা নিয়ে ছোট সন্তানকে এখনো ক্যামেরার সামনে আনেননি এই সেলিব্রিটি দম্পতি।কারণ মিডিয়া ছোট্ট তৈমুরের জীবনে যেভাবে প্রভাব ফেলেছিল, ছোট ছেলের ক্ষেত্রেও এমনটা হোক তা চান না তারা।

তবে শুধু মিডিয়ার থেকেই নয়। করিনা তার ছোট সন্তানকে ঠাকুরমা শর্মিলা ঠাকুরের থেকেও কিন্তু আগলে আগলে রাখছেন এই মুহূর্তে। শর্মিলা এখনো পর্যন্ত ছোট নাতির মুখ দেখতে পাননি। কারণটা অবশ্যই করোনা। তবে শর্মিলা যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তেমনটা কিন্তু নয়। আসলে শর্মিলা এখন রয়েছেন দিল্লির বাড়িতে।

অপরপক্ষে সেইফ, করিনা এবং তাদের সন্তানেরা রয়েছেন মুম্বাইয়ে। এখন যদি ছোট নাতিকে দেখতে যেতে হয় তাহলে শর্মিলাকে বিমানে করে দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে যেতে হবে। যা এখনই একেবারেই চাইছেন না শর্মিলা। করোনাকে ভয় পাচ্ছেন তিনি। তাই দিল্লির বাড়ি থেকে এই মুহূর্তে বাইরে বেরোতে চাইছেন না।

তবে আধুনিক প্রযুক্তির যুগে ভার্চুয়ালি তিনি তার পরিবারের সঙ্গেই রয়েছেন। ইতিমধ্যেই ভিডিও কলে ছোট নাতির মুখ দেখে নিয়েছেন শর্মিলা ঠাকুর। করোনার প্রকোপ কমলে তবেই মুম্বাইয়ে আসবেন তিনি। এদিকে তার অনুপস্থিতিতে কিন্তু করিনা শাশুড়ি মাকে বেশ মিস করছেন। কিন্তু করোনা বড় বালাই। সে নাতির সঙ্গে ঠাকুমাকে বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে।