প্রশাসনের কাছে বড়ো লজ্জা, জেলের মধ্যেই যুবতীকে গ্যাংরে’প, অভিযুক্ত সকলেই পুলিশকর্মী

মানুষের নৃশংসতার জন্যই হয়তো আজ প্রকৃতি মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছে মানুষের থেকে। দিনের-পর-দিন মানুষের নিসংসতা এতটাই বেড়ে চলেছে, তাকে শাস্তি দিতে রুষ্ট হতে হয়েছে প্রকৃতিকে। কিন্তু তাতেও কি টনক নড়ছে মানুষের? মৃত্যু মিছিল এখনো অব্যাহত। তারি মাঝে মানুষের পশু হওয়া কিন্তু কিছুতেই থামছে না।এমনই একটি নৃশংস ঘটনা ঘটেছে হরিয়ানার সনিপতে। ঘটনাটি সত্যি খুবই লজ্জাজনক। পুলিশের থানায় আসা অভিযুক্ত যুবতীদের থানাতেই হলো গ্যাং রেপ।এই লজ্জাজনক ঘটনাটি সকলের সামনে আসার পর অভিযুক্ত পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানা গেছে।

দুজন পুলিশ কর্মীকে হত্যার অভিযুক্ত থাকার কারণে দুই মহিলাকে বন্দি করা হয়েছিল। জেলের মধ্যে অভিযুক্ত মহিলাদের ওপর গন ধর্ষণ করল পুলিশ। এই মারাত্মক দুষ্কর্ম সঙ্গে যুক্ত একাধিক পুলিশ কর্মীদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই এফআইআর দায়ের করা হয়ে গেছে। সেই এফআইআর এর কপি এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।অভিযুক্ত তিন কর্মীর নাম সঞ্জয় রাধে এবং সন্দ্বীপ।

এ প্রসঙ্গে ডিএসপি রবিন্দর বলেছেন যে, এই বিষয়ে নিগৃহীতা ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ১৬৪ ধারায় বয়ান দায়ের করেছিলেন। মহিলাদের মেডিকেল টেস্ট করা হয়েছে। তবে তাতে এখনো ধর্ষনের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তবুও মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ কর্মীদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। সমস্ত ঘটনাটি তদন্ত চলছে।

এই বছরের ২৯ শে জুনের রাতে শনিবার জেলার গোহানা কসবায় এসপিও এবং কনস্টেবল রবীন্দ্র ডিউটিতে ছিলেন। বাইকে করে যখন এলাকা পরিদর্শন করতে তারা বেরিয়ে ছিলেন, তখন ঠিক বারোটা থেকে একটার মধ্যে তাদের হত্যা করা হয়। তাদের হত্যা করার অপরাধে গ্রেফতার করা হয়েছিল এই দুই মহিলাকে।