১৫ই অক্টোবর থেকে ধাপে ধাপে খুলছে স্কুল-কোচিং সেন্টার, নির্দেশিকা প্রকাশ করল কেন্দ্র

দীর্ঘ ছয় মাস বন্ধ থাকার পর চলতি মাসের ১৫ই অক্টোবর থেকে দেশে ধাপে ধাপে স্কুল এবং কোচিং সেন্টার গুলিকে খোলার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র। তবে, স্কুল খোলার ক্ষেত্রে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য। অর্থাৎ, কোনো রাজ্য যদি মনে করে, তাহলে আগামী সপ্তাহ থেকে স্কুল নাও খুলতে পারে। প্রত্যেক রাজ্য সরকার নিজের রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত নেবে। সোমবার এ সংক্রান্ত একটি বিস্তারিত নির্দেশিকা প্রকাশ করল কেন্দ্রীয় সরকার।

সোমবার কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানান, কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে জারি করা স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর তথা এসওপি‌ এর উপর ভিত্তি করে প্রত্যেক রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে স্কুল খোলার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা সংক্রান্ত নিজস্ব এসওপি তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো জানিয়েছেন, স্থানীয় পরিস্থিতি এবং প্রয়োজনীয়তা বিবেচনা করে রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি এই এসওপি ব্যবহার করতে পারে।

তবে স্কুল খোলার পরবর্তী পদক্ষেপ হিসেবে বেশ কয়েকটি নির্দেশিকা জারি করেছেন তিনি। যেমন, স্কুল খোলার দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে পরীক্ষা নেওয়া যাবে না বলে জানানো হয়েছে। পাশাপাশি, স্কুল কর্তৃপক্ষকে অনলাইনে ক্লাস চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রের তরফ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল, অভিভাবকদের অনুমতি থাকলে তবেই ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে আসতে পারবেন। স্কুলে উপস্থিতর ক্ষেত্রে কড়াকড়িও করা যাবে না বলেই জানাচ্ছে কেন্দ্র।

পাশাপাশি, আগামী সপ্তাহ থেকে স্কুল শুরু হলেও যেসকল পড়ুয়া কনটেইনমেন্ট জোনে বাস করছেন তারা স্কুলে আসতে পারবেন না বলে জানানো হয়েছে। স্কুলে ঢোকার আগেও থার্মাল স্ক্যানারের মাধ্যমে প্রত্যেক শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকের শারীরিক তাপমাত্রা মাপতে হবে বলে জানা গেছে। পাশাপাশি, প্রত্যেক পড়ুয়া, শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের সবসময় মাস্ক পড়ে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, কেবল খাবার এবং পানীয় জল পান করার সময়েই মাস্ক খোলা যেতে পারে। অন্যান্য সব সময় মাস্ক পড়ে থাকা বাধ্যতামূলক।