করোনা এবার বয়ের পাতায়, রাজ্যে স্কুলে প্রত্যেক ক্লাসের সিলেবাসে থাকবে ভাইরাসের খুঁটিনাটি

রাজ্য শিক্ষা পর্ষদ “করোনা” সম্পর্কে ছাত্র-ছাত্রীদের সতর্ক করতে নিতে চলেছে এক নতুন পদক্ষেপ। প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা পাঠ্যের অন্তর্ভুক্ত হবে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে খুঁটিনাটি তথ্যাবলী। ইতিমধ্যেই শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় নতুন সিলেবাস সংযোজনে স্কুল শিক্ষা কমিটির বিশেষজ্ঞদের নির্দেশ পাঠিয়েছেন। ছাত্র-ছাত্রীদের মাধ্যমে গণসচেতনতা বাড়াবার কথা ভাবছে শিক্ষা দপ্তর। এ বিষয়ে স্কুল বিশেষজ্ঞ কমিটির মত,”প্রত্যেক ক্লাসের পাঠ্যবইতে এই নির্দেশ থাকাটা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

ছাত্র-ছাত্রীরা সচেতন হলে সচেতন হবেন অভিভাবকেরাও।” আপাতত পাঠ্যবইয়ের পেছনে ১-২ পাতা করে করোনা সম্পর্কিত তথ্য রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই সিধো-কানহো-বিরসা বিশ্ববিদ্যালয় এবং লখনৌ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তরের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে “করোনা” সম্পর্কিত জ্ঞান।স্কুল শিক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান অভীক মজুমদারের কাছে জানা গেল,” করোনার সর্তকতা অবলম্বনে প্রয়োজনীয় তথ্য সিলেবাস এর অন্তর্গত করা সম্পর্কে প্রাথমিক স্তরে আলোচনা হয়েছে। আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে তা স্কুল পাঠ্যের অন্তগত করা হবে।”

অভিকবাবু আরও জানিয়েছেন, বয়স বিচারে পড়ুয়াদের রোগের ধারণা ও প্রতিকার সম্বন্ধে কতখানি সচেতনতা সিলেবাসের অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে, এ বিষয়ে তারা আগে চিকিৎসক ও মনোবিজ্ঞানীর থেকেপরামর্শ নেবেন। করোনা ভাইরাস কি, কিভাবে ছড়ায় সংক্রমণ, সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচার উপায়, এ সংক্রান্ত নানা তথ্য সিলেবাসে পাবেন ছাত্র-ছাত্রীরা। লকডাউনের পর আনলক ওয়ানে ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে রাজ্য। রাজ্য সরকারের অনুমতি পেয়ে ইতিমধ্যেই খুলে গিয়েছে সরকারি-বেসরকারি সংস্থা এবং ধর্মীয় স্থান গুলি। তবে স্কুল কলেজ খোলার ব্যাপারে আপাতত কোনো অনুমতি পাওয়া যায়নি।