“সড়ক-২”, সবথেকে কম রেটিংয়ের ফিল্ম, দর্শকরা ঝামা ঘষে দিলো মুকেশ ভাটের গালে

গত ১২ ই আগস্ট ২০২০ হটস্টার এর মাধ্যম দিয়ে সারা ভারতে রিলিজ হয়েছিল সড়ক টু এর ট্রেলার। এর আগে পোস্টার মুক্তির পর আইনি বিপাকে জড়িয়ে গিয়েছিলেন মহেশ ভাট। সারা ভারতে নেটিজেনদের একাংশ সিনেমাটি বয়কটের ডাক দিয়েছিলেন।ট্রেলার রিলিজ হবার পরে সেই বিতর্ক আরও বেশি করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠল নেটিজেনদের মধ্যে।প্রথমত এই সিনেমাটি ভাট ক্যাম্পের প্রযোজনা এবং দ্বিতীয়ত ছবির মূল চরিত্রে দুজনেই স্টারকিড আলিয়া ভাট এবং আদিত্য রায় কাপুর। সুশান্তর আকস্মিক চলে যাওয়া যে এখনো পর্যন্ত জনগণ মেনে নেয়নি, আবারো স্পষ্ট হল এই সিনেমার ট্রেলার এর ওপর নিজের ক্ষোভ দেখে। অনেকে মন্তব্য করছেন যে, সড়ক ২ এই সিনেমাটির জন্য হৎস্টার অ্যাপ টি কে আনইন্সটল করে দেওয়া হোক, ব্যান করে দেওয়া হোক হটস্টার। ভারতের সিনেমা ইতিহাসে এটি বোধহয় প্রথমবার হয়েছিল যে,কোন সিনেমার ট্রেইলার মুক্তি তিন ঘণ্টার মধ্যেই লাইকের থেকে ডিজলাইকের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে।

তিন ঘন্টার মধ্যে ৫২ হাজার লাইক ডিসলাইক সংখ্যা বেড়েছে ৫ লক্ষ ২০ হাজার।এই ছবিতে ক্যান্সারাক্রান্ত অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের উপস্থিতি দর্শকদের আবেগ জিততে পারেনি।গতকাল মুক্তি হবার কথা থাকলেও তা কোন বিশেষ কারণে পিছিয়ে দেওয়া হয় ভাটদের প্রযোজনা সংস্থার তরফ থেকে।নির্ধারিত দিনে সিনেমা রিলিজ করতে না পারার জন্য আগেই নেটিজেনদের ট্র্বলের শিকার হতে হয়েছে বলিউডের ভাট ক্যাম্প কে।নেটিজেনদের একাংশের বক্তব্য,বর্তমান পরিস্থিতিতে জনগণের রোষের মুখে পরেই নাকি ভয় পেয়ে ট্রেলার রিলিজ করেননি পরিচালক মহেশ ভাট। সুশান্তের চলে যাওয়া যে বলিউডকে পরবর্তীকালে একটি বড় মূল্য চোকাতে হতে পারে, তা হয়তো কেউই ভাবতে পারেনি। সকলেরই ধারণা ছিল, কিছুদিন পরেই সবকিছু শান্ত হয়ে যাবে। কিন্তু জনগণের ক্ষোভ যে উত্তরোত্তর বেড়েই চলছে, বলাই বাহুল্য।

সম্প্রতি মুক্তি পায় সড়ক ২ এর দুটি গান। একটি গান হল তুম হি হো এবং অপরটি হল ইসক কামাল।দর্শকরা সিনেমার ট্রেলারে সাথে সাথে এই গানগুলো কেও পছন্দ করেছেন। ডিজলাইক এর সংখ্যায় গানগুলিও নতুন রেকর্ড তৈরি করেছে। প্রায় দুই দশক পর এই সিনেমার হাত ধরে বলিউডে প্রত্যাবর্তন করতে চলেছিলেন মহেশ। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তার এই ফেরাটা বোধহয় সুখকর হলো না। বুধবার নেটিজেনদের ট্রলের শিকার হতে হয়েছে আলিয়া ভাটের কেও। “প্রডাক্ট অফ নেপোটিজম” বলে কটাক্ষ করা হয়েছে তাকে। যে সিনেমার ট্রেলার নিয়ে এত হৈচৈ পড়ে গেছে নেট দুনিয়ায়, সেই সিনেমা মুক্তি পেলো ২৮ শে আগস্ট হটস্টার ডিজনি তে। মাইক্রোব্লগিং ওয়েবসাইটে রিলিজ হওয়ার পর এই সিনেমাটি ভীষণভাবে বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছে।IMDB রেটিং অনুযায়ী এই সিনেমাটি দশের মধ্যে পেয়েছে মাত্র ১.২।

এছাড়াও এই সিনেমা নিয়ে নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি টুইটারে শেয়ার করেছেন অনেক নেটিজেন।এর আগে ভারতীয় ছবিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে খারাপ রেটিং পেয়েছে অজয় দেবগণের ‘হিম্মতওয়ালা’ (১.৭), রামগোপাল বর্মার ‘আগ’ (১.৭), অভিষেক বচ্চনের ‘দ্য লেজেন্ড অফ দ্রোনা’ (২) এবং হিমেশ রেশমিয়ার ‘কর্জ’।