ভা’র’তী’য় বা’য়ু’সে’না ক’রো’না’র সাথে ল’ড়’তে সা’হা’য্যে’র হা’ত বা’ড়া’লো

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে এই মুহূর্তে নাজেহাল ভারতবর্ষ। এই পরিস্থিতিতে কিভাবে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনা যায় তা বিবেচনা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারকে এবার এই বিষয়ে সাহায্য করবে ভারতীয় বায়ুসেনা বিভাগ। করোনার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয়। অক্সিজেন কন্টেইনার, সিলিন্ডার, প্রয়োজনীয় ওষুধ, সরঞ্জাম ও স্বাস্থ্যকর্মীদের চাহিদা অনুসারে নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করবে ভারতীয় বায়ুসেনা।

ইতিমধ্যে এই কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। আইএএফ দিল্লিতে ভারতের প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার কোভিড -১৯ অস্থায়ী হাসপাতালের জন্য কোচি, মুম্বই, ভাইজাগ এবং বেঙ্গালুরু থেকে ডাক্তার ও নার্সিং স্টাফ আনার ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যাঙ্গালুরু থেকে অক্সিজেন নিয়ে দিল্লির হাসপাতালগুলিতেও পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

দেশের প্রতিটি প্রান্তের করোনা হাসপাতালগুলিতে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ডাক্তার ও নার্সিং স্টাফ, জরুরিভিত্তিক মেডিক্যাল সরঞ্জাম, ওষুধ পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছে ভারতীয় বায়ুসেনা বিভাগ। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং সার্ভিস চিফ এবং ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) বিপিন রাওয়াতসহ শীর্ষ মন্ত্রকের কর্মকর্তাদের সঙ্গে গত মঙ্গলবার একটি বৈঠকের আয়োজন করেন।

উক্ত বৈঠকে তিনি প্রতিরক্ষা মন্ত্রককে এই কঠিন পরিস্থিতিতে দেশের সাধারণ মানুষকে সাহায্য করার আবেদন জানান। এই বৈঠকের শেষেই ভারতীয় বায়ুসেনা বিভাগ যুদ্ধকালীন তৎপরতায় দেশের সর্বত্র চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার লড়াইয়ে শামিল হয়েছে।