দুঃখজনক, দলিত পরিবারের ঠাঁই হলো শৌচাগারের কোয়ারেন্টিনে, ধিক্কার জানালো নেট দুনিয়া

বর্তমানে গোটা দেশ জুড়েই চলছে লকডাউন এবং কোয়ারেন্টাইন পরিস্থিতি।সমস্ত আর্থিক লেনদেন থেকে শুরু করে সমস্ত পরিষেবাই এখন বন্ধ। নভেল করোনা ভাইরাস একপ্রকার ত্রাস হিসেবে বিশ্বের সমস্ত প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে। ভারত ও এর ব্যতিক্রম নয়।তবে দেশ জুড়ে এই ভয়াবহ পরিস্থিতির আবির্ভাব হলেও দূর হয়নি সমাজের শেষ স্তরে থাকা মানুষগুলোর কষ্ট। এমনই একটি চিত্র ধরা পড়ল মধ্যপ্রদেশে।

প্রসঙ্গত, মধ্যপ্রদেশের গুনা বলে একটি অঞ্চলে একটি দলিত পরিবারকে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হলো একটি স্কুলের শৌচাগারে। যা নিয়ে ইতোমধ্যে কংগ্রেস-বিজেপির মধ্যে শুরু হয়েছে তরজা। জানা গিয়েছে, দিন আনা-দিন খাওয়ার মাধ্যমে চলা এই পরিবার শনিবার রাজঘড় থেকে গুনায় ফেরেন তাঁরা। এরপরই তাঁদের নিজেদের গ্রাম দেবীপুরা তে নিজেদের বাড়িতে প্রবেশ করতে গেলে তাঁদের বাধা দেয় স্থানীয় বাসিন্দারা ।স্বাস্থ্যপরীক্ষা ছাড়া গ্রামে বা ঘরে ঢোকা যাবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয় তাঁদের।

এরপরে স্বাস্থ্য কর্মীরা চিকিৎসকরা খাতিরে পরীক্ষাকরণের জন্য ওই গ্রামে পৌঁছালে তারা গিয়েছে দেখেন ওই পরিবার কে জায়গা করে দেওয়া হয়েছে একটি স্কুলের শৌচাগারে। সেখানে বসেই তাঁরা খাওয়া দাওয়া করছেন। এরপরই গ্রামে প্রবেশ করেন মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ।শুধু তাই নয়, তাঁরা সরাসরি অভিযোগ করেন “কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়াজ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া ই এই কাজ করিয়েছেন। তার এলাকাতে এরকম হয় কি করে? এই ঘটনায় বিজেপির সরকার ই জড়িত”।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন