বদলে যাচ্ছে ব্যাংক সংক্রান্ত একাধিক নিয়মাবলী, নয়া নিয়ম চালু ১ জুলাই থেকেই

বর্তমান পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে কেন্দ্র সরকারের তরফে একাধিক জরুরী ডেডলাইন ৩০ শে জুন অব্দি করা হয়েছিল। পহেলা জুলাই থেকে আবার পুরোনো নিয়মে ফিরে যাবে সব নিয়ম। ডেডলাইন গুলির মধ্যে আইটি রিটার্ন জমা দেয়া থেকে শুরু করে স্মল সেভিংস স্কিম এর বার্ষিক ডিপোজিট এবং প্যান আধার লিংক এর ডেডলাইন সামিল রয়েছে। এই বিষয়গুলো জানা জানলে অদূর ভবিষ্যতে ক্ষতি হতে পারে আপনার। তাই জেনে নেওয়া যাক পহেলা জুলাই থেকে কি কি বদলাতে চলেছে।

ন্যূনতম ব্যালেন্স: প্রত্যেকটি ব্যাংকের একাউন্টে ন্যূনতম ব্যালেন্স রাখতে হয়।করোনা পরিস্থিতির জন্য সেই নিয়ম তুলে দেওয়া হয়েছিল।কিন্তু আবার পহেলা জুলাই থেকে ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম ব্যালেন্স না থাকলে আপনাকে পেনাল্টি চার্জ দিতে হতে পারে। প্রত্যেকটি ব্যাংকের একটি নির্দিষ্ট টাকার অংক নির্ধারিত থাকে ন্যূনতম ব্যালেন্স রাখার জন্য। সেই অ্যামাউন্ট আপনাকে রাখতে হবে আপনার ব্যাংক একাউন্টে। এটি না রাখতে পারলে আপনার হবে জরিমানা।তবে স্টেট ব্যাংক এর তরফ থেকে ন্যূনতম ব্যালান্স রাখা বাধ্যতামূলক নিয়ম তুলে দেওয়া হয়েছে কিছু মাস আগে।

এটিএম উইথড্রল চার্জ: লক ডাউনের সময় কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে সব রকম এটিএম উইথড্রয়াল চার্জ তুলে নেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন জানিয়েছেন যে, যেকোনো ডেবিট কার্ড হোল্ডাররা আগামী তিন মাস যেকোনো ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকা তুলতে পারবেন। এর জন্য তাদের থেকে কোনো এক্সট্রা চার্জ নেওয়া হবে না।

এই ছাড় প্রথমে দেওয়া হয়েছিল ৩০ শে জুন পর্যন্ত। তারপর নিজের ব্যাংক ছাড়া অন্য ব্যাংকের এটিএম কার্ড থেকে টাকা তুললে নির্ধারিত লিমিটের পর চার্জ দিতে হতে পারে। সাধারনত ব্যাংকে মাসে ৫ বার ফ্রী লেনদেনের সুবিধা থাকে। নিজের ব্যাংক ছাড়া অন্যান্য ব্যাঙ্ক থেকে এটিএম এর টাকা তোলার ক্ষেত্রে লিমিট থাকে তিনবার।লিমিটের বাইরে টাকা তুললে আট থেকে কুড়ি টাকা টাকা পর্যন্ত অতিরিক্ত চার্জ দিতে হতো গ্রাহকদের। গ্রাহকরা কত টাকায় লেনদেন করছেন তার ওপর নির্ভর করত তার চার্জ কাটার অংক।

নতুন সংস্থা রেজিস্ট্রেশন: পহেলা জুলাই থেকে নতুন সংস্থা শুরু করা আরো সহজ হয়ে যাবে। বাড়িতে বসে শুধু আধার কার্ডের মাধ্যমে সংস্থা রেজিস্ট্রেশন করানো যেতে পারে। সেল্ফ ডিক্লারেশন এর মাধ্যমে সংস্থার অনলাইন রেজিস্ট্রেশন এর নতুন নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

ইপিএফ একাউন্ট: হোল্ডারদের অ্যাকাউন্টটি থেকে একটি নির্ধারিত টাকা তোলার ছাড় দেওয়া হয়েছিল। সেই ডেডলাইন ও ৩০ শে জুন শেষ হতে চলেছে। অর্থাৎ পহেলা জুলাই থেকে এডভান্স ক্লেম আপনি করতে পারবেন না।

সবকা বিশ্বাস স্কিম: এই স্কিমের ও ডেডলাইন ছিল ৩০ শে জুন। সরকারের তরফ স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে ৩০ শে জুন এর পর থেকে আর এই স্কিমে ডেডলাইন বাড়ানো যাবে না।