কৈলাশের সাথে দেখা করতে ইচ্ছুক, শঙ্কুদেবের সাথে আলোচনা, বিজেপির দিকে ঝুঁকছেন রুদ্রনীল

ফের অভিনেতা রুদ্রনীলকে দেখা যেতে পারে রাজনীতির ময়দানে। অবশ্য আজ সকালেই তিনি এই বার্তাই দিয়েছেন। তাহলে তবে কি তিনি যোগ দিতে চলেছেন বিজেপিতে এই নিয়েই প্রশ্ন হচ্ছে রাজনৈতিক মহলে? ছবি এই আশা আরো জোরালো হয়েছে গতকাল রাতে যখন তার সাথে দেখা করেছে বিজেপির যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক শঙ্কুদেব পান্ডা। আর এই শঙ্কুদেব পান্ডা এই নাকি রুদ্রনীলকে বিজেপিতে আসার আহ্বান জানিয়েছেন এমনটাই জানা যাচ্ছে সূত্রের মাধ্যমে। তবে বর্তমানে কলকাতায় নেই কৈলাস বিজয়বর্গীয় তবে তিনি ফিরলেই রুদ্রনীলের সঙ্গে দেখা করার ইঙ্গিত দিয়েছেন শঙ্কুদেব পান্ডা নিজে।

অনেকেই হয়তো জানবেন গতকাল বুধবার ছিল রুদ্রনীলের জন্মদিন। আর সেই জন্মদিন উপলক্ষে এই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শুভেচ্ছা পাঠান ফুলের তোড়া দিয়ে। কিন্তু এই জন্মদিনে সবাইকে এক দারুণ ট্রিট দেন রুদ্রনীল নিজে। সরাসরি না বললেও তিনি আকার ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দেন তিনি রাজনীতিতে সক্রিয় হতে চলেছেন। এতদিন রাজনীতি থেকে দূরে থাকলেও রাজনীতির উত্থান পতন নিয়ে নজর ছিল তার একেবারে কড়া, কিছুই এরায়নি তার চোখ থেকে। তবে এখন না হলেও পরিস্থিতি বুঝেই তিনি রাজনীতিতে আবার যোগদান করবেন, কিন্তু তার কথায় এটা স্পষ্ট যে তিনি একেবারেই খুশি নন শাসকদলের কার্যকলগতকাল বুধবার তার বাড়িতে উপস্থিত হন বিজেপির যুব মোর্চার সম্পাদক শঙ্কুদেব পান্ডা, সূত্রের মাধ্যমে জানা যায় তাদের মধ্যে নাকি ঘন্টাখানেক বৈঠক হয়।

আর সেখানেই তাকে দেওয়া হয় বিজেপিতে যোগদান করার প্রস্তাব। এই নিয়ে রুদ্রনীল,আমাকে বিজেপিতে যোগদান করার প্রস্তাব দেয়া হয় অবশ্য এর আগেও ২০১৯ সালে দেওয়া হয়েছিল আর একটি প্রস্তাব। তবে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি বলেই জানিয়েছেন তিনি। বর্তমানে কৈলাস বিজয়বর্গীয় কলকাতায় অনুপস্থিত থাকায় তার সাথে দেখা করতে পারছেন না তিনি। তবে শঙ্কুদেব পান্ডা জানিয়েছেন তিনি ফিরলেই রুদ্রনীলের সঙ্গে দেখা করবেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়।