একমাস হতেই জামিন পেয়ে গেলেন রিয়া চক্রবর্তী, মঞ্জুর বোম্বে হাইকোর্টে

প্রয়াত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যুরহস্য মামলায় প্রধান অভিযুক্ত তথা মাদক চক্রের সঙ্গে জড়িত রিয়া চক্রবর্তী দীর্ঘ একমাস জেল হেফাজতে থাকার পর অবশেষে বুধবার আদালতে তরফ থেকে শর্তসাপেক্ষে জামিন পেলেন। বোম্বে হাইকোর্টের বিচারপতি এ দিন এক লক্ষ টাকা ব্যক্তিগত বন্ডের বিনিময়ে রিয়াকে জামিন দেন। রিয়ার পাশাপাশি জামিনে মুক্তি পেয়েছেন স্যামুয়েল মিরান্ডা ও দীপেশ শাওন। তবে রিয়ার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী এখনো জেলবন্দি।

উল্লেখ্য, গত ৬ই অক্টোবর রিয়ার জেল হেফাজতের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এনসিবির বিশেষ আদালতের তরফ থেকে অবশ্য আগামী ২০শে অক্টোবর পর্যন্ত রিয়ার জেল হেফাজতের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল। এদিকে রিয়া বোম্বে হাইকোর্টে তার জামিনের আবেদন দাখিল করেন। হাইকোর্টের তরফ থেকে তার জামিনের আপিলের শুনানি অবশ্য সংরক্ষিত রাখা হয়। এদিন শুনানিতে রিয়ার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করলো বোম্বে হাইকোর্ট।

নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর রিপোর্ট অনুযায়ী, রিয়ার বিরুদ্ধে মাদক পাচারের অভিযোগ রয়েছে। তদন্তকারী আধিকারিকদের দাবি, রিয়া মাদক পাচারকারীদের কাছ থেকে মাদক সংগ্রহ করে সুশান্তের কাছে পৌঁছে দিতেন। বোম্বে হাইকোর্টের কাছে ৪৭ পাতার জামিনের আবেদনপত্র দাখিল করেন রিয়া। তার দাবি ছিল, সুশান্ত তাকে দিয়ে এবং তার কর্মীদের দিয়ে মাদক সংগ্রহ করাতেন। তবে সেই মাদক তিনি একাই সেবন করতেন।

রিয়া শুধুমাত্র মাদক সংগ্রহ করেছেন। এক্ষেত্রে বড়জোর তার এক বছরের জেল হতে পারে। সেক্ষেত্রে তার জামিন পাওয়াতে কোনো বাধা থাকছে না। রিয়ার আইনজীবী আরো বলেন, সুশান্ত যদি আজ বেঁচে থাকতেন, তাহলে মাদক সেবনের অপরাধে তিনিও এক বছরের শাস্তি পেতেন। রিয়া শুধুমাত্র মাদক জোগাড় করতেন। এক্ষেত্রে তার বিরুদ্ধে যে কুড়ি বছরের সাজা দেওয়ার কথা বলা হচ্ছে, তা একেবারেই যুক্তিসঙ্গত নয়।