রাত ৮ টার পর বন্ধ রেস্তোরাঁ, শপিং মল, না মানলেই মোটা অংকের জরিমানা

দেশের করোনা সংক্রমনের হার ফের ঊর্ধ্বমুখী। বিশেষত আগের বারের মতো এবারেও মহারাষ্ট্রকে নিয়ে উদ্বিগ্ন সারা রাষ্ট্র। দেশের মোট আক্রান্তের সংখ্যার অর্ধেকই মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা। অতএব মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে তা সারা দেশের পক্ষেই উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াবে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে ইতিমধ্যেই নানান পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে উদ্ভব ঠাকরের প্রশাসন।

শুক্রবার সরকারের তরফ থেকে একটি বিশেষ ঘোষণা করে জানানো হয় রাজ্যজুড়ে নাইট কারফিউ জারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এবার সংক্রমণ এড়াতে আরো একধাপ এগুলো প্রশাসন। সরকারের তরফ থেকে প্রকাশিত একটি নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, আগামীকাল রাত আটটা থেকে সকাল সাতটা পর্যন্ত রাজ্যের সকল রেস্তরাঁ, শপিং মল, বাগান বন্ধ রাখতে হবে।

একইসঙ্গে এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকছে সমুদ্রতটের উপরেও। আগামীকাল থেকেই রাজ্যের সকল নাটক মঞ্চ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি আগামীকাল থেকে কোন রাজনৈতিক সমাবেশ, ধর্মীয় কিংবা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবে না বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই বিধিনিষেধ অবজ্ঞা করলে জরিমানাও দিতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

রাজ্যের তরফ থেকে প্রকাশিত কড়া নির্দেশিকা অনুসারে, আগামীকাল থেকে রাত আটটার পর থেকে সকাল সাতটা পর্যন্ত কোনো জায়গায় পাঁচ জনের বেশি সমাবেশ করা যাবে না। এই নিয়ম ভাঙলে হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। পাশাপাশি মাস্ক না পরলে ৫০০ টাকা এবং রাস্তাঘাটে থুথু ফেললে হাজার টাকা জরিমানা ধার্য করা হবে মহারাষ্ট্রে।