বেহাল বাঁশের সাঁকোতে আগুন বাসিন্দাদের! চাঞ্চল্য এলাকায়

কোচবিহার- বারবার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে, কয়েকবার মাপামাপিও হয়েছে। কিন্তু সেতু হয় নি। কাজেই বারো মাস এলাকার বাসিন্দাদের যাতায়াতের একমাত্র ভরসা বাঁশের সাঁকো। কিন্তু সেই সাঁকোর অবস্থা এতটাই বেহাল যে যাতায়াত করতে গিয়ে মাঝে মধ্যেই দুর্ঘটনা ঘটছে। স্কুলের ছোট ছোট শিশুরাও ভাঙা সেতু গলে নীচে পড়ে যায়।

এদিন ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা এলাকার জনপ্রতিনিধিদের উপরে বিরক্ত হয়ে সাকোর বাঁশে আগুন লাগিয়ে দেয়। আর তাতেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় বাসিন্দা মোমিনুর হোসেন বলেন, এলাকায় একটি মরা নদীর জলাশয় রয়েছে। যে জলাশয়টি পাড় হয়ে গাড্ডারপাড়, যাত্রাপুর ও মালতিগুড়ি গ্রাম রয়েছে। যেখান থেকে প্রত্যেকদিন নানা কাজে বাসিন্দাদের শুকটাবাড়ির দিকে যেতে হয়। ভরসা সেই জলাশয়ের উপরে বাঁশের সাঁকো। যা দীর্ঘদিন থেকে যাতায়াতের অযোগ্য হয়ে রয়েছে। তাই ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা ওই সাঁকোতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছেন।

কোচবিহার ১ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির কৃষি কর্মাধ্যক্ষ খোকন মিয়াঁ বলেন, যতদ্রুত সম্ভব ওই এলাকায় গিয়ে সেখাবকার বাসিন্দারা যাতে ঠিক মত যাতায়াত করতে পারে, তার ব্যবস্থা করবো।