Reliance Jio: এই কয়েকটি প্ল্যানের চাহিদা তুঙ্গে, রেকর্ড হারে রিচার্জ

বর্তমান সময়ে সবথেকে জনপ্রিয় বেসরকারি টেলিকম সংস্থার রিলায়েন্স জিও, তাদের গ্রাহক সংখ্যা অন্য সমস্ত টেলিকম সংস্থার থেকে অনেকটাই বেশি। ইতিমধ্যেই রিলায়েন্স জিও তাদের ওয়েবসাইট ও জিও সিনেমা মোবাইল অ্যাপের ইন্টারফেসে দারুন পরিবর্তন করেছে যা অনেকটাই আকর্ষণীয়। তবে এখানেই শেষ নয় রিলায়েন্স জিও তাদের বিভিন্ন প্রিপেইড প্ল্যান গুলো কে তিনটি ভাগে বিভক্ত করেছে। সুপার ভ্যালু বেস্ট সেলিং ও ট্রেন্ডিং।

ইতিমধ্যেই রিলায়েন্স জিও তাদের মাই জিও অ্যাপ এর বিভিন্ন প্লেনের লিস্টিং করে ফেলেছে যার মধ্যে সুপার ভ্যালু হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে কম পয়সায় বেশি অতিরিক্ত ভ্যালিডিটি প্লান গুলোকে। তারপরেই রাখা হয়েছে বেস্ট সেলিং প্ল্যান, যেগুলো ভারতবাসী সবথেকে বেশি পরিমাণে রিচার্জ করেছেন আর সর্বশেষে রাখা হয়েছে ট্রেন্ডিং অর্থাৎ যে সমস্ত প্রিপেইড প্ল্যান বর্তমান সময়ে সব থেকে বেশি জনপ্রিয় ও চর্চিত।

কোম্পানি সর্বপ্রথমেই সুপার ভ্যালু প্যাক এর লিস্টিং করেছে যেখানে রাখা হয়েছে ২৪৯ টাকা ও ২৫৯৯টাকার প্ল্যান প্রথম প্লেনের ভ্যালিডিটি ২৮ দিন যেখানে দৈনিক ডেটা পাওয়া যাবে ২ জিবি করে। এর পরেই ২৫৯৯, টাকার প্লেনের ভ্যালিডিটি ৩৬৫ দিন যেখানে দৈনিক ডেটা পাওয়া যাবে ২ জিবি করে,ও সাথে একস্ট্রা পাওয়া যাবে ১০ জিবি ডেটা। স্বাভাবিকভাবেই দুটি প্ল্যানের মধ্যে রয়েছে আনলিমিটেড ভয়েস কলিং এর সুবিধা ও ১০০ এস এম এস দৈনিক। তবে শেষের প্ল্যানে পাওয়া যাবে ডিজনি হটস্টার এর ফ্রি সাবস্ক্রিপশন।

এরপরের ক্যাটাগরিতে রাখা হয়েছে ১৯৯ টাকা, ৫৫৫ টাকা, ৫৯৯ টাকা এবং ২৩৯৯ টাকার প্ল্যান। প্রথম দুটি প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ২৮ দিন ও ৮৪ দিন, সাথে দৈনিক ডেটার পরিমাণ ১.৫ জিবি। এদিকে পরের দুটি প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ৮৪ দিন ও ৩৬৫ দিন। এই দুটি প্লানে দৈনিক ডেটার পরিমাণ ২ জিবি করে। সমস্ত প্ল্যানের মধ্যে থাকবে আনলিমিটেড ফ্রি ভয়েস কলিং এর সুবিধা ও দৈনিক 100 এসএমএস।

সর্বশেষে ট্রেন্ডিং প্রিপেড প্ল্যান এর মধ্যে রাখা হয়েছে ৩৪৯ টাকার প্ল্যানটিকে। এখানে দৈনিক ৩জিবি ডাটা ব্যবহার করার সুযোগ পাওয়া যাবে যার ভেলিডিটি ২৮ দিন। এখানে থাকছে আনলিমিটেড ফ্রি ভয়েস কলিং এর সুবিধা ও দৈনিক ১০০ এসএমএস, গ্রাহকরা মোট ৮৪ জিবি ডাটা ব্যবহার করার সুযোগ পাবে এই প্ল্যানে।