ভিন্ন পথে মানুষের পাশে রেশন ডিলার, নিঃসঙ্গ বৃদ্ধের বাড়িতে পৌঁছে দিলেন খাবার, পাশে থাকার অঙ্গীকার

বর্তমানে গোটা দেশ জুড়েই চলছে লকডাউন এবং কোয়ারেন্টাইন পরিস্থিতি।কারণ একটি মারণ ভাইরাস যার নাম করোনা বর্তমানে গোটা বিশ্ব জুড়েই সেটি ছড়িয়ে পড়েছে।ভারতেও ইতিমধ্যে তার প্রভাব বিস্তারের কথা আমরা জেনেছি।ইতিমধ্যেই জানা গিয়েছে, ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪২ হাজার অতিক্রম করে গিয়েছে। কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে এই পরিস্থিতিতে রেশন ব্যবস্থা চালু করা হলেও সমাজের বৃদ্ধ এবং অসহায় মানুষগুলোর ঝক্কি পোহাতে হচ্ছে সবচেয়ে বেশি।

প্রসঙ্গত, লকডাউনের বাজারে অভাব ক্রমশই বেড়ে চলেছে। রেশনের লাইনে জমছে হাজার হাজার ক্ষুধার্ত মানুষের ভিড়। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গে এই রেশন নিয়েই একাধিক অভিযোগ উঠেছে।জানা গিয়েছে, কোথাও অভিযোগ চাল চুরির তো আবার কোথাও দেখা যাচ্ছে পর্যাপ্ত রেশন না দেওয়ার অভিযোগে হচ্ছে অশান্তি।এত অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও বাংলায় কিন্তু এখনও রাজেশ খেমকার এর মতো রেশন ডিলারও রয়েছেন। যিনি অসহায় বৃদ্ধের বাড়িতে গিয়ে রেশন নিজেই পৌঁছে দিয়ে এলেন। শুধু তাই নয়, তিনি ওই বৃদ্ধের রেশন কার্ড পাওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাজকর্মও তাঁকে করে দিয়ে এলেন।

সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, ঘটনাটি ঘটেছে আসানসোলের ধাদকা বলে একটি অঞ্চলে। শনিবার সকালে এই বৃদ্ধ যাঁর নাম হল সুবোধ কুমার পান্ডে, তিনি রাজেশ বাবুর দোকানে গিয়ে জানান তাঁর কাছে এখনও রেশন কার্ড নেই তিনি আবেদন করেছেন। কিন্ত খাওয়ার সংগ্রহের জন্য প্রশাসনের তরফ থেকে তাঁকে ফুড কুপন দেওয়া হয়েছে। কিন্ত রেশনের দোকানে ছিল তখন অঢেল ভিড়। সুবোধ বাবু বহু বছর হল তাঁর স্ত্রী মারা গিয়েছেন। ছেলেপুলেও কেউ নেই। তখন রাজেশ বাবু এক ঘন্টা পর নিজে দায়িত্ব নিয়ে তাঁর বাড়িতে রেশন পৌঁছে দেন।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন