বাড়ির দরজায় পৌঁছে যাবে রেশন! তৃণমূলের ইস্তেহারে থাকতে পারে বিরাট চমক

একুশের বিধানসভা নির্বাচনেও নীল বাড়ির দখল ধরে রাখতে মরিয়া প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাজ্য শাসকদল। পরপর তিনবার রাজ্যের মসনদ ধরে রাখার উদ্দেশ্য সিদ্ধ করতে মমতা সরকারের তুণীর থেকে একের পর এক প্রকল্প, ঘোষণা, আশ্বাসবাণী বাণ হিসেবে বেরিয়ে আসছে। এবার একুশের লড়াইয়ে জিততে মমতা সরকারের নতুন চমক রেশনের হোম ডেলিভারি! চলতি দফায় তৃণমূল জিতলে রেশন গ্রাহকের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যাবে খাদ্যশস্য।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে বামেদের হারিয়ে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন পশ্চিমবঙ্গের মসনদে বসেন তখন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের পিছিয়ে পড়া মানুষদের দুই টাকা কেজি দরে চাল দেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেন তিনি। এরপর করোনার আবহে গতবছরের ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় আমপানের পর তিনি ঘোষণা করেন রাজ্যের প্রতিটি মানুষ আগামী জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন পাবেন।

এবার মুখ্যমন্ত্রীর চমক রাজ্যের মানুষদের বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দেওয়া। তবে সেটা এখনই নয়। একুশের নির্বাচনে মমতা সরকার ফের রাজ্যের শাসন ক্ষমতা পেলেই এই ব্যবস্থা চালু হয়ে যাবে বলে আশ্বস্ত করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। প্রসঙ্গত, আগামী ১৪ই মার্চ তৃণমূলের তরফে ইশতেহার পেশ করা হবে। নির্বাচনের তুরুপের তাস হিসেবে ব্যবহৃত হবে এই ইশতেহার।

তৃণমূলের তরফের ওই ইশতেহারে আগামী পাঁচ বছরের জন্য শাসক দলের তরফ থেকে রাজ্যবাসীর জন্য একাধিক প্রতিশ্রুতি পেশ করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবারেই তৃণমূলের তরফের এই ইশতেহার পেশ করার কথা ছিল। তবে মুখ্যমন্ত্রী হঠাৎ আহত হয়ে পড়ায় সেই দিন পিছিয়ে দেওয়া হয়। আগামী ১৪ই মার্চ ইস্তেহার প্রকাশের দিন ধার্য করেছে তৃণমূল।