সীমান্তে উত্তেজনার মধ্যেই রাশিয়া গেলেন রাজনাথ সিং, চাপে ঘুম উড়ছে চিনের

কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং সম্প্রতি তিনদিনের সফরে রাশিয়ার মস্কো শহরে পৌঁছেছেন। রাশিয়ার তরফ থেকে মস্কোতে সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন বা এসসিও-র বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। এই বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানায় রাশিয়া। ভারতের পাশাপাশি বৈঠকে উপস্থিত থাকবে পাকিস্তান ও চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রীরাও।

তবে কেন্দ্রীয় সূত্রে খবর, সীমান্ত উত্তেজনার কথা মাথায় রেখে, চীন ও পাকিস্তানের মুখপাত্রদের সাথে কোনোরকম বৈঠকে বসবেন না কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন ও কমনওয়েলথ অফ ইন্ডিপেনডেন্ট স্টেটসের মঞ্চে রাশিয়ার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করবে ভারত। উল্লেখ্য, গতবারের রাশিয়া সফরেই এই তিন দিনের বৈঠক সংক্রান্ত আলোচনা হয়েছিল।

গতবার রাশিয়া সফরে গিয়ে মে ডে প্যারেডে অংশগ্রহণ করেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শ্যোইগ তাকে বর্তমান বৈঠকে অংশগ্রহণ করার আমন্ত্রণ জানান। মস্কোর বিমানবন্দরে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে সাদরে অভ্যর্থনা জানিয়েছেন রাশিয়ার মেজর জেনারেল বুখতীভ উরি নিকোলাভিচ। চীন, পাকিস্তান, ভারত, সার্বিয়া এবং আফগানিস্তানের সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবে রাশিয়া।

বুধবার কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হলো, এই দ্বিপাক্ষিক বৈঠক এ সীমান্ত সংঘর্ষ এবং নাশকতা মূলক কার্যকলাপ সম্বন্ধে আলোচনা হতে পারে। কূটনীতিকদের মতে, ভারত-চীন সীমান্ত সংঘর্ষের আবহে, এই বৈঠকে ভারতের অংশগ্রহণ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। একই মঞ্চে উপস্থিত থাকলেও, চীন এবং পাকিস্তানের মুখপাত্রদের সাথে কথা বলবেন না কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। যার ফলে, আন্তর্জাতিক মহলে ভারতের তরফ থেকে নিঃসন্দেহে এক কূটনৈতিক বার্তা পৌঁছাবে।