সারাদিন ধরে বৃষ্টি, চার ঘণ্টা ধরে আমিরকে চুম্বন, স্মৃতিচারণ করলেন ক্যারিশমা

অনেকেরই প্রিয় সিনেমার তালিকায় রয়েছে রাজা হিন্দুস্তানির নাম। এই সিনেমাটির আদ্যপ্রান্ত একটি মিষ্টি প্রেমের গল্পে মোরা। এ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন আমির খান এবং কারিশমা কাপুর। সালটা ছিল ১৯৯৬ । তখন দর্শকদের ছবির প্রতি চাহিদা ছিল অন্যরকম। ঘরোয়া, পারিবারিক সম্পর্কে ভরা সিনেমা দেখতে পছন্দ করতেন তারা। এই সময়ে ছিল রাজা হিন্দুস্তানি ছবি। এই ছবিটি তখনকার যুগের সকল মানুষকে নাড়িয়ে দিয়ে চলে গেছিল।তখনকার মানুষ অভ্যাস ছিল না সিনেমার মধ্যে কোন চুম্বনের ছবি দেখতে।

কিন্তু আমির খান এবং কারিশমা কাপুর অভিনীত এই ছবিটিতে একটি বৃষ্টি ভেজা দিনে ছিল একটি চুম্বনের দৃশ্য। এ দৃশ্যটি দেখে রীতিমতো হকচকিয়ে যায় তখনকার মানুষ। স্বাভাবিকভাবেই তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। কিন্তু কেমন ছিল সেই চুম্বনের অভিজ্ঞতা।এখনো পর্যন্ত কিন্তু সেই চুম্বনের অভিজ্ঞতা ভুলতে পারেননি আমির খান অথবা কারিশমা কাপুর কেউ। সেই চুম্বনে শুটিং নিয়ে এবার খোলাখুলি কথা বললেন খোদ কারিশমা কাপুর। তিনি জানালেন যে, টানা তিন দিন শুটিং চলছিল এই পর্বের।

একের পর এক টেক, কিন্তু কিছুতেই কোন কিছু মনের মত হচ্ছিলোনা পরিচালকের। তখনকার সময় কোন দৃশ্য শ্যুট করা খুব কঠিন ছিল। ফেব্রুয়ারি মাসে উটির মতো জায়গায় টানা তিন দিন চলছে তাকে শুটিং। ফেব্রুয়ারি মাসে বৃষ্টির মধ্যে শুটিং করতে হয়েছিল তাদের। একদিকে গায়ের মধ্যে জল, অন্যদিকে সামনে থেকে আসা ঠান্ডা পাখার হাওয়া। শীতের মধ্যে জমে গিয়েছিলেন তারা দুজনে। পাশাপাশি অভিনেত্রী আরো বলেন যে,তখনকার সময় শুটিং এর পদ্ধতি একেবারেই অন্যরকম ছিল।

অনেক কষ্ট করে তারপর একটি টেক পাওয়া যেত। তারা দুজনেই ভেবেছিলেন যে, কবে শেষ হবে এই চুম্বন দৃশ্যের শুটিং। প্রতিদিন প্রায় সকাল সাতটা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এই ছবির শুটিং করতে হতো তাদের। অস্বস্তি হলেও যতক্ষণ না সঠিকভাবে শুটিং করা হতো, যতক্ষণ না কোন দৃশ্য পরিচালকেরমনের মতো হতো ততক্ষণ অভিনেতা-অভিনেত্রীদের শুটিং করে যেতে হতো।এখনো পর্যন্ত তারা মনে করতে পারেন সেই চুম্বন দৃশ্যের শুটিংয়ের কথা। ২৪ বছর পরেও তারা ভুলতে পারেননি সেই চুমুর দৃশ্য।