এতদিনে একটা সঠিক সিদ্ধান্ত নিল সরকার, কেন্দ্রের আর্থিক প্যাকেজ নিয়ে বললেন রাহুল

আজ কেন্দ্রের আর্থিক প্যাকেজকে স্বাগত জানিয়েছে রাহুল গান্দী। তিনি আর্থিক পায়কেজ ঘোষণা করার পরেই টুইট করে স্বাগত জানিয়েছেন, তিনি টুইট করে লিখেছেন। এই প্রথম সরকার একট আসঠিক পদক্ষেপ নিয়েছে। আমরা সবাই দিন মজুর, কৃষক, মহিলা ও বয়স্কদের কাছে ঋণী। কারণ তারা চলতি লক ডাউনে অনেকটাই কষ্টের মধ্যে আছে। আজ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ একটি আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছে, সেখানে ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

সেই যে প্যাকেজ বানানো হয়েছে, সেখানে বিশেষ করে গরীব দের কথা, খেটে খাওয়া মানুষদের কথা ও বিশেষ করে মহিলাদের কথা মাথায় রেখেই করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার তাদের তরফ থেকে একগুচ্ছ স্কিমের কথা ঘোষণা করেছে আজকে। জনমোহিনী প্রকল্প, উজ্জ্বল যোজনা প্রকল্প, কিষাণ প্রকল্প, জণধন প্রকল্প, সব ধরনের প্রকল্পের কথাই আজকে উল্লেখ করা হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী সাংবাদিক সম্মেলনে আরও বিস্তারে জানিয়েছেন বিধবা ভাতা, ১০০ দিনের কাজের কথা, কৃষকদের কথা, স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের কথা, নির্মাণ কর্মী, জনধন যোজনা ও সংগঠিত কর্মীদের কথাও উল্লেখ করেছেন তিনি। কৃষকদের কথা তিনি জানিয়েছেন, আগামী এপ্রিল মাসের মধ্যেই প্রায় ৮ কোটি ৭০ লক্ষ কৃষকদের এই আওতায় নিয়ে আসা হবে। তাদের একাউন্টে বার্ষিক ৬ হাজার টাকার প্রথম কিস্তি ২০০০ টাকা দিয়ে দেওয়া হবে।

এদিকে যারা ১০০ দিনের কাজে সাথে যুক্ত ছিল, তাদের আগের তুলনায় মজুরি বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আগে ছিল তাদের মজুরি ১৮২ টাকা, এখন সেটা করে দেওয়া হল ২০২ টাকা। এদিকে উজ্জ্বল যোজনার অন্তর্গত বিপি এলের মহিলাদের আগামী ৩ মাসে গ্যাস সিলিন্ডার দেওয়া হবে, তাও একেবারে বিনামূল্যে। সাথে বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, বার্ধক্য ভাতা সব কিছুই দফায় দফায় একাউন্টে সরাসরি ট্রান্সফার করে দেওয়া হবে।

এদিকে শেষে জানানো হয়েছে যারা জনধন যোজনারসাথে যুক্ত, বিশেষ করে যেসব মহিলাদের এই যোজনার অন্তর্গত একাউন্ট আছে তাদের আগামী ৩ মাসে ৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে। আর এই সব সরাসরি একাউন্টে দেওয়া হবে তাদের। এদিকে রেশনে চাল, গম ও ডাল দেওয়ার কথাও জানিয়েছে, যার জন্য কোনো ধরনের টাকা লাগবে না সাধারণ মানুষদের।