সিনেমাহলে মু’ক্তি পে’লো “রাধে”, প্রথম দিনে কালেকশন মাত্র ৬ হাজার টা’কা

সংক্রমণের হার কিছুটা কমতেই মহারাষ্ট্র সরকার সিনেমা হলগুলিকে খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। এর পরেই মহারাষ্ট্রের সিনেমা হলে সালমানের অনুরাগীদের জন্য মুক্তি পেয়েছে সালমান খানের লেটেস্ট হিন্দি ছবি “রাধে”! রাধে অবশ্য ওটিটি প্লাটফর্মে এর আগেই মুক্তি পেয়েছিল। তবে সালমান খানের ছবি বলে কথা! অনুরাগীরা সিনেমা হলে বসে ছবি দেখে বেশি উপভোগ করবেন বলেই মনে করেছিলেন সিনেমা হল কর্তৃপক্ষরা।

তবে সে গুড়ে বালি। ছবিটি সিনেমা হলে মুক্তি পেতেই হল কর্তৃপক্ষ নিজেদের ভুল বুঝতে পারলেন। প্রথম দিনেই বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছে সালমান খানের “রাধে”। আগে যেখানে সালমান খানের ছবি সিলভের স্ক্রীনে প্রথম মুক্তি পেতেই কোটি কোটি টাকা উপার্জন হতো বক্স অফিসের, বর্তমানে সেখানে হাতে গুনে মোট ৬ হাজার ১৭ টাকা উঠেছে! সালমান খানের সিনেমার রেকর্ড ভেঙে দেওয়া সাফল্যের মাঝে এ এক নতুন রেকর্ড!

প্রসঙ্গত লকডাউনকালেই ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছিল সালমান খান এবং দিশা পাটানি অভিনীত সিনেমা “রাধে”। তবে এই সিনেমাটিকে কেন্দ্র করে প্রথম থেকেই বহু ট্রল এবং মিমের বন্যা বয়ে গিয়েছে নেট দুনিয়ায়। সালমান খানের নতুন ছবি দর্শককে হতাশ করেছে। প্রথম থেকেই “রাধে”কে কেন্দ্র করে নেতিবাচক কমেন্টে ভরে উঠেছে নেট দুনিয়া। ছবি রেটিংও অত্যন্ত কম। তবুও দর্শকের উপর আশ্বাস রেখে সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছিল “রাধে”।

গত ১১ই জুন মহারাষ্ট্রের মালেগাঁও-এর ইনজয় ড্রাইভ-ইন সিনেমা হল আর ঔরঙ্গাবাদের সিনেপ্লেক্সে “রাধে” সিনেমাটির প্রদর্শন করানো হয়। মালেগাঁওয়ের সিনেমা হলে দুটি শো, আর ঔরঙ্গাবাদের সিনেমা হলে ৪টি শোয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। সর্বসাকুল্যে কেবল ৮৪টি টিকিট বিক্রি হয়েছে। মালেগাঁওয়ের সিনেমা হলে ৩ হাজার ৫৯৭ টাকা এবং ঔরঙ্গাবাদের সিনেমাহলে ২ হাজার ৪২০ টাকা উঠেছে। দর্শক না থাকার দরুন মালেগাঁও সিনেমা হলের দ্বিতীয় শোটি শেষমেষ বন্ধই হয়ে যায়! ‌