ক’রো’নার বাড়বাড়ন্ত, বন্ধ হোক ভোট, পিপিই কিট পরে কমিশন অফিসের সামনে প্রতিবাদ

একদিকে ভোট অন্যদিকে করোনা, দুটি মিলিয়ে রীতিমতো জেরবার হয়ে যাচ্ছে সাধারণ মানুষ। আরো একবার আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কিছুতেই ভোট পর্বের কাজকর্ম কমছে না। জেলায় জেলায় জনসভায় উপস্থিত থাকছেন বহু মানুষ। মাক্স দূরের কথা সামাজিক দূরত্ব মানছে না কেউ। এমতাবস্থায় রাজ্যে অবিলম্বে নির্বাচন বন্ধ করার দাবিতে আজ কমিশন অফিসের সামনে পিপিই কিট পড়ে শুয়ে পড়লেন একজন মানুষ।

অ রাজনৈতিক দলের তরফ থেকে এই প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। তাদের দল থেকে বেশকিছু মানুষ এসে এই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সামিল হন। তাদের স্পষ্ট বক্তব্য অনুসারে, এই মুহূর্তে রাজ্যের অবস্থা খুবই উদ্বেগজনক। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। কিন্তু এই নিয়ে কোনো রাজনৈতিক নেতাদের হেলদোল নেই।

মানুষ যেন এখন থেকেই সাবধান হোন। আগেরবারও ঠিক এইভাবে সমস্ত আনন্দ থেকে বঞ্চিত হতে হয়েছে আমাদের। তাহলে ভোট নিয়ে এত উন্মাদনা কারণ কি? প্রতিদিন এই ভাবে মিটিং মিছিল সভা করার কোন মানে হয় না।

তাতে স্পষ্ট দাবি অনুযায়ী, অবিলম্বে ভোট বন্ধ করা হোক। মিছিল মিটিং সবকিছুই বন্ধ করা হোক। প্রয়োজনে বিকল্প উপায় বেছে নিতে হবে। এই দাবিতে রাস্তায় শুয়ে পড়েন একজন প্রতিবাদী মানুষ। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,পশ্চিমবঙ্গে ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে আক্রান্ত হয়েছেন ২০৫৮ জন। কলকাতায় একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৮২ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের।