রেশন কার্ডে সমস্যা, কোচবিহারে খাদ্য সরবরাহ দফতরে লম্বা লাইন সাধারণ মানুষের

কেউ আবেদন করেছেন কিন্তু কার্ড পান নি। কারুর আবার ভুল করে দূরের ডিলার দেওয়ায় সংশোধনের আবেদন জানিয়েও কাজ হয় নি।অভিযোগ, রেশন কার্ডের ওই সমস্যা গুলো থাকায় এই লকডাউনের বাজারে সরকারি সহায়তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তাঁরা। দিনের পর দিন ডিলারের কাছে গিয়েও মিলছে না রেশন।

এদিন কোচবিহারের বাসিন্দা মনিকা সরকার বলেন, “বাড়ির আশেপাশে সকলেই রেশনে চাল গম পাচ্ছে বিনামূল্যে। আমার রেশন কার্ডের আবেদন জানিয়েও কার্ড না মেলায় রেশন পাচ্ছি না। এদিকে কাজ নেই বলে খাদ্য সংকটে পড়েছি। তাই রেশন কার্ডের খোঁজ নিতে জেলা অফিসে এসেছিলাম। কিন্তু কিছুই হল না।”

কোচবিহার ১ নম্বর ব্লকের হারিভাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা নগেন রায় বলেন, “আবেদন করার পর আমার ছোট রেশন কার্ড এসেছিল। কিন্তু ডিলার দেওয়া হয়েছিল অনেকটা দূরে, যেখান থেকে রেশন আনা অনেক কঠিন। তারপর আবেদন করেছিলাম ডিলার পরিবর্তনের জন্য। সেটাও ৩ মাস হয়ে গেল। এখন রেশন পাচ্ছি না। গরীব মানুষ আমরা। এই সময় বিনামূল্যে রেশন টুকু পেলে একবেলা তো খেতে পারতাম।”

এদিকে জেলা খাদ্য সরবরাহ দফতরের মত জায়গায় ব্যাপক ভির জমলেও সোশ্যাল ডিস্টেন্স বলতে সেরকম কিছুই নেই। লাইনের কোন কোন জায়গায় তো গাদাগাদি করে পরিষেবা থেকে বঞ্চিত মানুষরা দাঁড়িয়ে রয়েছেন। এই নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। খাদ্য সরবরাহ দফতরে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অনেকেই বলেন, সরকারি ভাবে কার্ড গুলো পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করলে সাধারণ মানুষকে ঝুঁকি নিয়ে এমনটা করতে হত না। এনিয়ে অবশ্য জেলা খাদ্য সরবরাহ দফতরের কোন আধিকারিকের বক্তব্য পাওয়া যায় নি।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন