প্রয়োজনের তুলনায় বেশি লেবু জ’ল খে’লে যেসব স’ম’স্যা দে’খা দি’তে পা’রে শ’রী’রে

শরীর সুস্থ রাখতে লেবু জলের উপকারিতা সম্পর্কে প্রায় সকলেই কম বেশী জানেন। প্রতিদিন সকালে উঠে এক গ্লাস লেবু জল পান করার অভ্যাস রয়েছে অনেকেরই। এতে শরীর থেকে দূষিত পদার্থ বের হয়ে যায়। এছাড়াও চরম গরমে শরীর ঠান্ডা রাখার জন্য লেবু জল পান করে থাকেন অনেকেই। কিন্তু জানেন কি অতিরিক্ত লেবু জল পানেও কিন্তু শরীর খারাপ হয়?

দাঁতের ক্ষতি : অতিরিক্ত লেবু জল পানে দাঁত ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়ে। লেবুতে উপস্থিত সাইট্রাস এসিড সরাসরি তাদের সংস্পর্শে এসে দাঁতকে সংবেদনশীল করে তোলে। এর জন্য স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা সর্বদা স্ট্র ব্যবহার করে লেবু জল পানের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এতে লেবু জল সরাসরি দাঁতের সংস্পর্শে আসবেনা।

পেট খারাপ : পেটের সমস্যা দেখা দিলে অনেকেই লেবুর রস পান করে থাকেন। তবে লেবুর রস সরাসরি পান করলে তা কিন্তু পেটের ভেতর গিয়ে এসিডিটি সৃষ্টি করতে পারে। এর জন্য সর্বদা জলে মিশিয়ে অথবা খাবারে মিশিয়ে লেবুর রস পানের পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

মাইগ্রেনের সমস্যা বৃদ্ধি : যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা আছে তাদের লেবু এড়িয়ে চলা উচিত। কারণ সাইট্রাস এসিড সমৃদ্ধ ফল গুলিতে টাইরামাইন নামক এক ধরনের পদার্থ থাকে যা শরীরে প্রবেশ করে মাইগ্রেনের সমস্যা বৃদ্ধি করে। এতে যারা মাইগ্রেন রোগে ভুগছেন তাদের আরো সমস্যা দেখা যায়।

ডিহাইড্রেশন : লেবু জল শরীর থেকে টক্সিন দূর করে। ঘন ঘন প্রস্রাব হয়। এটা কিন্তু কার্যত শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে জল বেরিয়ে যায়। তাই ডিহাইড্রেশনের সমস্যা এড়াতে বেশি পরিমাণে লেবু জল খাওয়া উচিত নয়। নতুবা জলের সঙ্গে সঙ্গে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় সোডিয়াম এবং ইলেকট্রোলাইটস শরীর থেকে বেরিয়ে যাবে।

রক্তে আয়রনের পরিমাণ বৃদ্ধি : ভিটামিন সি রক্তে আয়রন ধরে রাখে। অতিরিক্ত পরিমাণে লেবু জল পান করলে রক্তৈ ভিটামিন সি এর পরিমাণ বাড়বে। যে কারণে আয়রনের পরিমাণও বাড়বে। যা আসলে শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর।