উত্তরপ্রদেশে অপরাধের দামের তালিকা ফাঁস, এক হাজারে হুমকি, ৫৫ হাজারে খুন

ফের বিতর্কের সম্মুখীন উত্তরপ্রদেশের যোগী প্রশাসন। একের পর এক গণধর্ষণ, খুন, এনকাউন্টারের পর এবার সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের “অপরাধের রেট চার্ট” সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে এল। সংস্থার প্রধান রীতিমতো বিজ্ঞাপনের মতো পোস্টার বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়ালে এই রেট চার্ট প্রকাশ করেছে। উত্তরপ্রদেশের অপরাধ দুনিয়ায় কোন অপরাধের ক্ষেত্রে কেমন খরচ পড়তে পারে, তার পুঙ্খানুপুঙ্খ বিবরণ দেওয়া রয়েছে ওই ওয়ালে।

উত্তর প্রদেশের মুজাফফরনগরের ঘটনা। দুষ্কৃতী দলের কাছে এই ঘটনা এতটাই সহজ এবং সাধারন যে অপরাধী দলের প্রধান এক তরুণ আগ্নেয়াস্ত্র হাতে নিয়ে নিজের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় দিতেও পিছপা হয়নি। সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়ালে আবার অপরাধের চার্ট বানিয়ে কত টাকার বিনিময়ে ওই দুষ্কৃতী দল এই অপরাধ করে থাকে তার স্পষ্ট বিবরণ দেওয়া রয়েছে।

রেট চার্ট অনুযায়ী, কাউকে যদি শুধু হুমকি দিতে হয় তার জন্য ওই দুষ্কৃতী দলকে ১০০০ টাকা দিতে হবে। বেধড়ক পেটানোর জন্য দর রয়েছে ৫০০০ টাকা। গুরুতরভাবে জখম করার জন্য এই দুষ্কৃতীর দল ১০,০০০ টাকা নিয়ে থাকে। কারওর প্রাণ নিতেও কিন্তু পিছপা হয় না তারা। মাত্র ৫৫ হাজার টাকার বিনিময়েই যে কারোকে প্রাণে মেরে দেবে এই দুষ্কৃতী দল। এই রেট চার্ট কার্যত উত্তরপ্রদেশের আইন-শৃঙ্খলাকে আরও একবার প্রশ্নের মুখে ফেলে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনা প্রকাশ পেতেই নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। পুলিশের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করে দেওয়া হয়েছে। তদন্তে জানা গেল দুষ্কৃতী দলের প্রধান ওই যুবক আসলে উত্তরপ্রদেশের চৌকারা গ্রামের বাসিন্দা এক পিআরডি জওয়ানের ছেলে। তার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে ঘটনার জন্য অবশ্য এখনও পর্যন্ত কারোকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।