পোস্ট অফিসের এই পলিসি অত্যন্ত লাভজনক, রয়েছে অতিরিক্ত সুবিধা

দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষ বাড়িতে টাকা রাখার বদলে বিভিন্ন ব্যাংক এবং পোস্ট অফিসে টাকা রাখতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। ব্যাংকে বা পোস্ট অফিসে টাকা রাখলে যেমন গচ্ছিত অর্থের নিরাপত্তা রক্ষা হয়, তেমনি মাস গেলে বা বছরান্তে গচ্ছিত অর্থের উপর বেশ মোটা অর্থের সুদও মেলে। তাই দেশের বেশিরভাগ মানুষই ব্যাংকে বা পোস্ট অফিসে টাকা জমা রাখাকে সুরক্ষিত এবং লাভজনক বলে মনে করেন।

তবে, বর্তমানে অর্থনৈতিক অধোগতির পরিস্থিতিতে ব্যাংকের তুলনায় পোস্ট অফিসে টাকা রাখা বেশি লাভজনক। পাশাপাশি পোস্ট অফিসে লাইফ ইন্সুরেন্স পলিসি করার ক্ষেত্রেও কিন্তু বেশ কিছু সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যায়। পোস্ট অফিসে জীবন বীমা সংক্রান্ত যে পলিসি পাওয়া যায় তাকে বলা হয় পোস্টাল লাইফ ইন্সুরেন্স পলিসি। এই পলিসির আওতায় গ্রাহক ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বীমা সুবিধা পাবেন।

ইন্ডিয়া পোস্টের ওয়েবসাইটে এই পলিসি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আপলোড করা রয়েছে। তথ্য অনুসারে, ৫৫ বছরের কম বয়সীরা এই পলিসি কিনতে পারবেন। ৬ বছরের মধ্যে পলিসি তে কোনো বদল না ঘটানো হলে, সেটি সারা জীবনের জন্য বিবেচিত হবে। পাশাপাশি এই পলিসি থেকে প্রয়োজনের সময় লোনও তুলতে পারবেন গ্রাহক। পলিসি প্রিমিয়ামের টাকা প্রদানের ক্ষেত্রেও রয়েছে বিশেষ সুবিধা। গ্রাহক চাইলে বার্ষিক, অর্ধ-বার্ষিক বা মাসিক কিস্তিতে প্রিমিয়াম দিতে পারেন।

শুধু তাই নয়, এই পলিসির টাকার উপর আয়কর প্রদানের ক্ষেত্রেও রয়েছে বিশেষ ছাড়। সে ক্ষেত্রে আয়কর আইনের সেকশন ৮৮ অনুযায়ী আয় করে ছাড় মিলবে। পাশাপাশি, প্রয়োজনে দেশের যেকোনো সার্কেলে এই পলিসি ট্রানস্ফারও করতে পারেন গ্রাহক। তবে, পরপর ৬ বার প্রিমিয়ামের টাকা না দিতে পারলে পলিসি ল্যাপস হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি, তিন বছর পলিসি চালু রাখার পর ১২ বার প্রিমিয়াম জমা না দিলেও কিন্তু পলিসি ল্যাপস হয়ে যায়।