পপ তারকা ও র‍্যাপার হিউকে গুলি, হাসপাতালে নেওয়ার পথেই মৃত্যু

ভারতের যেমন জনপ্রিয় রবীন্দ্র সংগীত, বাউল গান। তেমনই বিদেশের মাটিতে চিরকালই জনপ্রিয় হয়ে এসেছে পপ এবং রক সংগীত। বিদেশের সংগীতজগতে ঘটে গেলো এক দুঃখজনক ঘটনা। ৩১ বছরের শিল্পী হিউ কে গুলি করে খুন করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বৃহস্পতিবার সেন্ট লুই তে পরপর দুবার গুলি চালিয়ে খুন করা হয় হিউ কে, এমনই তথ্য জানিয়েছে সেখানকার পুলিশ।নিজের প্রথম সিঙ্গেলস থেকেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন সেন্ট লুই এর হিউ। তার প্রথম সিঙ্গেলস এর নাম’ পপ রক এন্ড ড্রপ ইট’.মিসৌরি থেকে ১৫ মাইল দূরে কিনলাচ বৃহস্পতিবার এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশ আক্রান্ত কে নিয়ে হাসপাতালে যায়। সেখানে জানা যায় তার পুরো নাম লরেন্স ফ্যানক জুনিয়র। তিনি পরিচিত হিউ নামেও। হাসপাতালে নিয়ে যাবার পরেই মৃত্যু হয় তার। কিন্তু কে বা তারা ঠিকই কারণে তাকে গুলি করল তা এখনো জানতে পারেনি পুলিশ।এই ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে জানা গেছে,ঘটনাস্থলে যখন গুলি চালানো হয়েছিল তখন সেখানে প্রায় ১০ জন উপস্থিত ছিলেন। তাদের প্রত্যেকটি খুঁজে বার করার চেষ্টা চলছে।

সেই ব্যাক্তিদের বহনের ভিত্তিতেই দুষ্কৃতীদের খুঁজে বের করতে হবে। দ্বিতীয় যে ব্যক্তির গাইছে দিন গুলি লেগেছিল তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা এখন স্থিতিশীল বলে জানা গিয়েছে।শিবের প্রথম এলবাম পপ, রক এন্ড ড্রপ ইট মুক্তি পেয়েছিল ২০০৭ সালে। এই অ্যালবামটি প্রায় ২৩ সপ্তাহ ধরে বিলবোর্ড হট ১০০ তে ৬নম্বর স্থানে ছিল।শিবের ম্যানেজার রিংটোন বলেছেন যে,” এই ঘটনা সত্যিই অত্যন্ত মর্মান্তিক। জীবনকে মন থেকে উপভোগ করতেন হিউ। তার দীর্ঘ জীবন বাঁচার খুব ইচ্ছা ছিল। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তা আর সম্ভব হলো না”।