প্র’কা’শ্যে এলো আমেরিকা’য় আফগান শ’র’ণা’র্থী শি’বি’রে’র ছবি! জা’নু’ন কে’ম’ন আ’ছে তারা?

প্রকাশ্যে এলো আমেরিকায় আফগান শরণার্থী শিবিরের ছবি! জানুন কেমন আছে তারা?

আফগানিস্তান থেকে বহু মানুষকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে আমেরিকাতে। এই মুহূর্তে তারা মার্কিন সেনার বেসক্যাম্পে জীবন কাটাচ্ছেন। সুরক্ষার খাতিরে তাদের সঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না। তবে তারা কেমন আছেন, কেমন ভাবে দিন কাটাচ্ছেন তা তুলে ধরলো আমেরিকা। এয়ারলিফট শেষ হওয়ার পর প্রথমবার সেই শরণার্থী শিবিরের ছবি প্রকাশ করা হয়েছে।

এই বেস ক্যাম্পে অন্তত ১০ হাজার আফগান শরণার্থী রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। প্রশাসনের তরফ থেকে তাদের মেডিকেল চেকআপের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। আমেরিকাতে তাদের পুনর্বাসন দেওয়ার আগে সবদিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আমেরিকার তরফ থেকে এই মিশনকে ‘ঐতিহাসিক’ ও ‘নজিরবিহীন’ মিশন বলে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে। এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে হাজার হাজার আফগানকে নিয়ে এসে যে ভাবে আশ্রয় দেওয়া হলো, তা আগে কখনো হয়নি।

শুক্রবার আফগান শিশুদের আমেরিকার ওই শরণার্থী শিবিরের বাইরে খেলাধূলা করতে দেখা যায়। বড় বড় সাদা তাঁবুতে রাখা হয়েছে পরিবারগুলিকে। সকলে লাইন দিয়ে খাবার নিচ্ছেন, এমন দৃশ্যও দেখা গিয়েছে। খাবারের কন্টেনারের ভরে দেওয়া হচ্ছে আফগানদের পছন্দের খাবার বাসমতী চালের ভাত ও স্টু। তারা যে দেশ থেকে এসেছেন সেই দেশের আবহাওয়া অনুযায়ী স্থানে থাকতে দেওয়া হয়েছে তাদের।

এসি তাঁবু, ডাইনিং হলের ব্যবস্থা রয়েছে তাদের তাঁবুগুলিতে। আমেরিকার দাবি, আফগানিস্তান থেকে অন্তত ৫০ হাজার আফগানকে উড়িয়ে নিয়ে আসা হয়েছে আমেরিকায়। এদের মধ্যে অনেকেই এমন রয়েছেন যারা মার্কিন সেনাদের গাড়ির চালক অথবা ট্রান্সলেটর হিসেবে কাজ করেছেন। কাবুল তালেবান জঙ্গিদের দখলে চলে যাওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের কর্মী, রাষ্ট্রদূত ও দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনার কাজ শুরু করে দেয়। মার্কিন সেনারাও কাবুল প্রত্যাহার করেন। সঙ্গে করে নিয়ে আসেন প্রচুর আফগান নাগরিকদের।