জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি হামলা চালাতে পারে পাকিস্তান, সীমান্তে আঁটোসাঁটো করা হলো নজরদারি

একদিকে চীন অপরদিকে পাকিস্তান! ভারত এখন কার্যত জোড়া শত্রুর সম্মুখীন। সম্প্রতি সীমান্তরক্ষী বাহিনীর তরফ থেকে যে চিত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরা হলো তাতে কার্যত ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের রাতের ঘুম উড়েছে। সীমান্তরক্ষী বাহিনী সূত্রে খবর, ভারত-পাকিস্তান প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার ঠিক উল্টোদিকেই জম্মু সীমান্ত বরাবর এক ডজন নতুন লঞ্চপ্যাড মোতায়েন করেছে পাকিস্তান!

সীমান্তের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে বিএসএফের তরফ থেকে রীতিমতো হাই এলার্ট জারি করা হয়েছে। বিএসএফের গোয়েন্দা বিভাগ এবং বিভিন্ন সংস্থার তরফ থেকে প্রাপ্ত রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, পাকিস্তানের ষড়যন্ত্র অনুযায়ী অন্তত একশো জঙ্গি ভারতীয় ভূখণ্ডে অনুপ্রবেশ চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। সীমান্তের ওপারে পিপি নালা,দেওয়া, দাদাল, থান্ডি কাসি সহ বিভিন্ন এলাকায় লঞ্চপ্যাড প্রস্তুত রাখছে পাক জঙ্গিরা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ওই বিতর্কিত অঞ্চল থেকেই কিছুদিন পূর্বে বেশ কয়েকজন জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করে নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনী। জানা গিয়েছিল, ধৃতরা ভারতের মন্দিরে মন্দিরে গ্রেনেড হামলা চালানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেই ভারতে প্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছিল। এবারেও ভারতের সীমান্তে অশান্তির পরিস্থিতি সৃষ্টি করার প্রচেষ্টায় রয়েছে পাক জঙ্গিরা। বর্তমানে, সীমান্তের ওপারে অন্তত ১১৮ জন জঙ্গি জমায়েত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ভারতীয় গোয়েন্দা বিভাগ সূত্রে খবর, পাক জঙ্গিদের মদত দিচ্ছে আইএসআই। ভারতে আক্রমণ চালানোর জন্য পাক জঙ্গিদের টাকা-পয়সা, আধুনিক অস্ত্র-শস্ত্র, শীতবস্ত্র এবং জিপিএস নেভিগেশন সিস্টেম সরবরাহ করছে আইএসআই। তবে পাক জঙ্গী বাহিনীর কার্যকলাপের পাল্টা জবাব দিতে সম্পূর্ণ তৈরি বিএসএফ। বিএসএফ সূত্রে খবর, ওই এলাকায় জোর নজরদারি চালানো হচ্ছে। জঙ্গিরা যদি নিতান্তই হামলা চালায়, তাহলে একজন জঙ্গিও বেঁচে ফিরতে পারবে না বলেই জানাচ্ছেন সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা।