চিনের মদতে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন পাকিস্তানের, বাড়তে পারে উত্তেজনা

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে মিসাইল সাইট তৈরী করছে পাকিস্তান, এমনটাই জানা গেলো সূত্রের মাধ্যমে। তারা এবার সেখানে মোতায়েন করবে ক্ষেপণাস্ত্র। তবে এর পেছনে যে কার কারসাজি রয়েছে সেটা সহজেই বুঝতে পেরেছে কূটনৈতিক মহল। লাল চিনের কারসাজি রয়েছে এই ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের পেছনে। কারণ খবর বলছে বেজিং থেকে ইঞ্জিনিয়ার হায়ার করে আনছে ইসলামাবাদ।

ইতিমধ্যে ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনীর রিপোর্টে জানা গেছে, এখন শুধু পাকিস্তান সেনা একা নয়, তার সাথে আছে চিনা সেনাও। একেবারে দুই সেনার মহড়া নাকি চলছে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। লাইন অফ কন্ট্রোলের ওপাশের শুধু এক জায়গায় না, বিভিন্ন জায়গায় এই নির্মাণ কার্য চালানো হচ্ছে। লাসদানা ধকের কাছে পাউলি পীর এলাকায় এই ক্ষেপণাস্ত্র বসানোর কাজ করছে তারা। রিপোর্ট হিসেবে ১২-১৩০ জন পাক সেনার সাথে আছে ২০-৩০ জন সাধারণ মানুষ।

তারাও হাতাহাতি কাজ করছে। তবে জানা গেছে এই যে ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে তার কন্ট্রোল রুম রয়েছে বিদেল বাগে, সেখানেই দায়িত্বে থাকবেন ১০ জন চিনা জওয়ান ও ৩ জন চিনা আধিকারিক। এখানেইশেষ নয়, সামরিক নির্মাণের সাথে তৈরী করা হচ্ছে রাস্তা, জাগলোট থেকে গৌরি কোট পর্যন্ত রাস্তা তৈরী করা হবে।সব জায়গাতেই এখন চিনা ইঞ্জিনিয়ার, চিনা সামরিক। মূলত চিন পাকিস্তান ইকোনমিক করিডরের ওপরে নজর রাখতেই এই সব কাজ করা হচ্ছে। চিনের হেক্সাকপ্টার থেকে শুরু করে বিভিন্ন আগ্নেয়াস্ত্র সব কিছুই সরবরাহ করছে চিন।