বুথে ভোটার মাত্র ৯০, তবে ভোট পড়লো ১৭১ টি! গরমিল ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে

পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি দেশের আরও বেশ কয়েকটি রাজ্যে একুশের বিধানসভা নির্বাচনী ভোট গ্রহণ পর্ব শুরু হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের প্রতিবেশী রাজ্য আসামেও চলছে ভোটগ্রহণ। তবে ভোট গ্রহণ পর্ব শুরু হতে না হতেই নির্বাচন নিয়ে জটলা বাধঁলো আসামে। অসমের ডিমা হাসাও জেলায় ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়ায় ব্যাপক গরমিলের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ, ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যার অধিক ভোট পড়েছে।

পয়লা এপ্রিল অসমের ডিমা হাসাও জেলার ভোটকেন্দ্রে ভোট হয়েছে। ওই জেলার হাফলং কেন্দ্রে ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। অভিযোগ, কেন্দ্রের খোটলির এলপি স্কুলে ভোটার তালিকায় মোট ভোটারের সংখ্যা ছিল ৯০ জন। তবে ওই কেন্দ্রে ১৭০ জনের ভোট পড়েছে বলে জানা গিয়েছে। যে কারণে ওই জেলায় সেখানে ভোটের হার ৭৪ শতাংশ হয়েছে।

অভিযোগের আঙুল উঠেছে গ্রামের প্রধানের উপর। কারণ তিনি নাকি ৯০ জনের ভোটার তালিকা মানতে রাজি হননি। তাই তিনি পরে ১৭০ জনের ভোটার তালিকা নিয়ে আসেন এবং সেই মতো ভোট হয়। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছেন অভিযোগকারীরা। কমিশন এরপর ওই বুথের পাঁচ পোলিং অফিসারকে সাসপেন্ড করে।

কমিশনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ওই বুথে ফের নির্বাচন হবে। তবে বুথে আবার কবে নির্বাচন হবে সে সম্পর্কে অবশ্য এখনো কোনো কিছু জানানো হয়নি। পোলিং অফিসাররা কেন নতুন ভোটার তালিকা অনুসারে ভোট করালেন সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। তাদের উপর অভিযোগের আঙুল উঠতেই তাদের সাসপেন্ড করলেন জেলার নির্বাচনী আধিকারিক।