রাষ্ট্রায়ত্ত্ব কোনো সংস্থা বেসরকারি হওয়ার পর আর থাকবে না কোনো সংরক্ষণ

করোনা পরবর্তী পর্যায়ে দেশের অর্থনৈতিক ঘাটতি মেটানোর উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা গুলির বেসরকারিকরণের পথে হাঁটছে কেন্দ্রীয় সরকার। বর্তমান পরিস্থিতিতে জ্বালানি তেলের সংস্থাগুলি থেকে শুরু করে এয়ারলাইনস, রেল এমনকি ব্যাংক বেসরকারিকরণেরও সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এবার সেই সিদ্ধান্তের সঙ্গে জড়িত অপর একটি গুরুতর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলো কেন্দ্র।

ভারতে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলিতে জাতিগত সংরক্ষণের কোনো ব্যবস্থা নেই। কারণ বেসরকারি সংস্থাগুলির পক্ষে সংরক্ষণ প্রদান করা সম্ভব নয়। তাই এবার থেকে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলিকে বেসরকারি ঘোষণা করে দেওয়ার পর আর সেখানে সংরক্ষণ নীতি লাগু করা হবে না। ডিপার্টমেন্ট অফ ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড পাবলিক অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট তথা DIPAM এর নীতি অনুযায়ী এমনটাই জানানো হয়েছে।

তবে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলি বেসরকারিকরণের পর সেই সংস্থায় কর্মরত কর্মীদের জীবিকার সুরক্ষা বজায় রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে। সংস্থায় কর্মরত কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধাগুলিকে অবশ্যই অগ্রাধিকার দিতে হবে বলে জানিয়েছে DIPAM। সংশ্লিষ্ট সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বেসরকারি সংস্থা গুলির অবশ্যই স্বাধীনভাবে ব্যবসা করার অধিকার রয়েছে। তবে তা যেন কর্মচারীদের স্বার্থ বিঘ্নিত না করে।

প্রসঙ্গত বর্তমানে ভারত পেট্রোলিয়ামের সংরক্ষণ নীতি নিয়ে জোর আলোচনা চলছে। এই বিষয়ে রাজ্যসভায় কেন্দ্রের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সরকারি ক্ষেত্রগুলিতে যেভাবে সংরক্ষণ নীতি মেনে চলা হয় বেসরকারি সংস্থার ক্ষেত্রে তেমনটা করতে হবে না। তবে কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধা, সমস্যাগুলিকে অবশ্যই বিবেচনা করে দেখবে সংস্থা।