ভারতে আসার পথে রাফাল-কে লক্ষ্য করে মিসাইল ছুঁড়েছিল ইরান, দাবি আমেরিকার

সম্প্রতি মার্কিন প্রদেশের একটি বিশিষ্ট সংবাদমাধ্যমে মার্কিন সেনার তরফ থেকে একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। ওই সংবাদ সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী, ২৮ শে জুলাইয়ের রাতে আল ধাপরা বিমান ঘাঁটিতে আশ্রয় নিয়েছিলেন রাফাল ফাইটার জেটের পাইলটেরা। এদিকে মার্কিন সংস্থার খবর অনুযায়ী, ভারতের রাফাল ফাইটার জেটের খুব কাছাকাছি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছিল ইরান।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহির রাজধানী আবুধাবি থেকে প্রায় এক ঘন্টা পথের দূরত্বে অবস্থিত আল ধাফরা বিমান ঘাঁটি। ২৭ শে জুলাই ফ্রান্স থেকে যাত্রা শুরু করে, মাঝপথে ২৮ শে জুলাই ওই বিমান ঘাঁটিতে আশ্রয় নেয় রাফাল ফাইটার জেট গুলি। ওই বিমানঘাঁটির খুব কাছেই সাহরের জলে তিনটি ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র পড়েছে বলে দাবি করেছে মার্কিন সেনাবাহিনী।

বর্তমানে হরমুজ প্রণালীতে যুদ্ধ মহড়ায় ব্যস্ত ইরান। তবে মহড়ার মাঝেই, মার্কিন বিমান ঘাঁটি গুলিকে লক্ষ্য করে ইরান দূরপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়ছে বলে অভিযোগ। উল্লেখ্য, মার্কিন গোয়েন্দারা আগেই সতর্ক করে বলেছিলেন, আল ধাফরা এবং কাতারের আল উদাঈদ বিমানবন্দরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাতে পারে ইরান।

মার্কিন সেনাবাহিনীর দাবি, মার্কিন বিমান ঘাঁটি লক্ষ্য করেই এদিন ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে ইরান। তবে ক্ষেপণাস্ত্র গুলি জলে পড়ে নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়। তবে মার্কিন সেনা মেজর বলেছেন, এই ক্ষেপণাস্ত্র যদি আল ধাপরাবিমান ঘাঁটিতে এসে পড়তো তাহলে তাতে ভারতও ক্ষতিগ্রস্ত হত। কারণ, ওই সময় ওই বিমানঘাঁটিতে ভারতের পাঁচটি রাফাল ফাইটার জেট আশ্রয় নিয়েছিল।