ভারতীয় হিসেবে গর্বের দিন, সমগ্র দেশকে অভিনন্দন জানালেন প্রধানমন্ত্রী মোদি, রয়েছে বড়ো কারণ

অপেক্ষার অবসান! করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধের টিকা কবে আসবে, সেই নিয়ে দেশবাসীর মনে উদ্বেগের অন্ত ছিল না। অন্যান্য বেশ কিছু দেশ নিজেদের মতো করে টিকা প্রদান কর্মসূচি শুরু করে দিয়েছে। কেন্দ্রের তরফ থেকেও আগে আশ্বস্ত করে জানানো হয়েছিল, চলতি বছরের প্রথমার্ধেই করোনার টিকা হাতে পেয়ে যাবেন দেশবাসী। কথা রেখেছে কেন্দ্র। ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার ডক্টর ভি জে সোমানি নিজে সেই কথা প্রকাশ করলেন।

ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার তরফ থেকে এদিন একটি সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল। সেই সম্মেলনে ডক্টর ভি জে সোমানি জানিয়েছেন, অক্সফোর্ড ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন এবং ভারতে আবিষ্কৃত কো-ভ্যাকসিন ব্যবহারের ছাড়পত্র দিচ্ছে বিশেষজ্ঞ মহল। অতএব শীঘ্রই সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে এই ভ্যাকসিন ব্যবহারের আশা তৈরি হয়েছিল সাধারণের মনে।

সেই খবর প্রকাশিত হওয়ার ঠিক এক মিনিটের মাথায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট বার্তার মাধ্যমে দেশবাসীকে শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দিলেন। এদিনের টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, আজকের দিনটি ভারতবাসীর কাছে অত্যন্ত গর্বের দিন। কারণ এই দিনেই একসঙ্গে দুটি ভ্যাকসিনের জরুরি টিকাকরণের অনুমোদন পেল ভারত। ভারতে তৈরি ভ্যাকসিনের সফলতা কার্যত দেশের বৈজ্ঞানিক মহলের কর্ম দক্ষতার পরিচায়ক! প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, ভ্যাকসিন আবিষ্কারে ভারতের বৈজ্ঞানিক মহল আত্মনির্ভর ভারতের পরিকল্পনাকে সফল করেছে। বৈজ্ঞানিক মহলের চিন্তা, আবেগ, যত্ন আজ ভারতের জন্য এই সফলতা নিয়ে এসেছে।