OMG, কোনো কিছু বাকি নেই, সবই খেয়ে চলেছে, তবুও ১৮ মাস শৌচাগারে যায়নি এই কিশোর

সুস্থ জীবনের লক্ষণ হলো সঠিক জীবনচক্র। জাগতিক সমস্তকিছুই একটি চক্রের মধ্যে দিয়ে অগ্রসর হয়। দিন-রাত, আলো-অন্ধকার, জোয়ার-ভাটা, চাঁদ-সূর্য, ঋতুচক্র সমস্তটাই যেন একে অপরের সঙ্গে জড়িত। জীবনের ক্ষেত্রেও তাই। সুস্থভাবে জীবনধারণের জন্যেও রয়েছে নির্দিষ্ট রোজনামচা। যেখানে নির্দিষ্ট মাত্রায় খাদ্য গ্রহণ, পরিপাক, রেচন, নিদ্রা সবই জরুরি। অন্যথায় রোগের উপদ্রব ঘটে।

তবে এই পৃথিবীতে এমন বেশ কিছু ঘটনা ঘটে যার সঙ্গে জাগতিক নিয়মের মিল পাওয়া যায় না। যেমনটা ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের মোরানা জেলার পুরা কা সাবজিত এলাকায় বসবাসকারী ১৬ বছরের কিশোর আশিস চান্ডিলের সঙ্গে। তার শরীরে রেচন প্রক্রিয়া প্রায় নেই বললেই চলে। তাই তো বিগত দেড় বছর ধরে শৌচাগার যেতে হয়নি তাকে। শুনতে অবাক লাগলেও, এমনই আজব ঘটনা ঘটেছে তার সঙ্গে।

শৌচাগারে যায় না বলে এমনটা নয় যে সে খাবার খায় না। পরিবারের তরফ থেকে জানা গেল, দিনে ১৮-২০টা রুটি খায় এই কিশোর। তবুও ফল মেলেনি। ঠিক কী হয়েছে তার? এ কোন অদ্ভুত রোগ বাসা বেঁধেছে তার শরীরে? চিকিৎসকদের কাছে তার কোন জবাব নেই। ইতিপূর্বে বহু চিকিৎসকের কাছে দেখানো হয়েছে তাকে। কিন্তু তারা কেউই আশিসের মূল রোগটিকে চিহ্নিত করতে পারছেন না।

পরিবারের আশঙ্কা, এর থেকে ভবিষ্যতে তার কোনো ভয়ঙ্কর রোগ না হয়ে যায়। ১৮ মাস ধরে শৌচাগার যায়নি সে! চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী একাধিকবার পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে তার। বহু ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছে তার শরীরে। তবু সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি। চিকিৎসকদের বক্তব্য অনুসারে সমস্ত পরীক্ষার রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত তার ঠিক কি হয়েছে জানা সম্ভব নয়। বর্তমানে আশিসের পরিবার ছেলের সুস্থতা কামনা করার পাশাপাশি তার শরীর নিয়ে আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছেন।