OMG: রাজ্যে কোনো মিছিল-বিক্ষোভ করা যাবে না আগামী ১৫ দিন, জারি নয়া নির্দেশিকা

দেশে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ আছড়ে পড়েছে। দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণের হার ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষত মহারাষ্ট্র এবং কর্ণাটকে করোনা সংক্রমণ দ্রুতহারে ছড়াচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তাই আগামী ১৫ দিনের জন্য বিশেষ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে কর্ণাটক সরকার।সম্প্রতি সরকারের তরফ থেকে প্রকাশিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, আগামী ১৫ দিনের জন্য রাজ্যে কোনোরূপ র‍্যালি অথবা মিছিলের আয়োজন করা যাবে না।

কর্ণাটক সরকার জানিয়ে দিয়েছে, এই ১৫ দিনে যেমন একদিকে কোনোরূপ র‍্যালি অথবা মিছিলের আয়োজন করা যাবে না, তেমনই কোনো বড় অনুষ্ঠান কিংবা পার্টি অথবা বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশের আয়োজনও করা যাবে না। আবার কেউ যদি মাস্ক না পরেই বাইরে বের হন তাহলেও তার বিরুদ্ধে কড়া শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উক্ত দিনগুলির জন্য কর্ণাটকবাসীকে নির্দিষ্ট করোনাবিধি মেনে চলতে হবে। এ প্রসঙ্গে বিশিষ্ট সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের কাছে কর্ণাটক সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ১৫ দিনে রাজ্য জুড়ে লকডাউনের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে না। তবে রাজ্যবাসীকে কঠোর নিয়ম নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে হবে। উল্লেখ্য, রাজ্যের স্কুল-কলেজগুলি অবশ্য খোলাই থাকছে।

প্রসঙ্গত, করোনার কারণে ফের মহারাষ্ট্রকে নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে। দেশের মোট করোনা আক্রান্তের অর্ধেক সংখ্যক মানুষ মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা। গত ২৪ ঘন্টায় মহারাষ্ট্রে নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ হাজার ছাড়িয়েছে। এই পরিস্থিতি সামলাতে আগামী দিনে লকডাউনের পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিতে পারে মহারাষ্ট্রের উদ্ভব ঠাকরের প্রশাসন।