OMG: ৫০ বছর পর ফিরে এলেন বৃদ্ধের অস্ট্রেলীয় প্রেমিকা, হতবাক গোটা গ্রাম

এভাবেও হয়তো ফিরে আসা যায়। প্রেমের কাছে বয়সটা কোনো ফ্যাক্টরই নয়, তা আবার প্রমাণ করলেন ভারতীয় ৮২ বছর বয়সী এক প্রেমিক এবং তার অস্ট্রেলিয়ান প্রেমিকা। আজ থেকে প্রায় ৫০ বছর আগে ভারতের মাটিতেই দুজনের প্রথম দেখা। এরপর প্রেম নিবেদন। তবে সারা জীবনের জন্য দুইজনের এক হয়ে ওঠা হয়নি। সামাজিক এবং পারিবারিক কারণেই দুজনের বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

কথা হচ্ছে রাজস্থানের কুলধারা গ্রামের এক বৃদ্ধের সম্পর্কে। আজ থেকে ৫০ বছর আগে তার বয়স ছিল মাত্র ৩০ বছর। তখনই তার সঙ্গে দেখা হয় অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা মারিনা নামের এক যুবতীর। রাজস্থানের জয়সলমীরে বেড়াতে এসেছিলেন তিনি। প্রথম দেখাতেই প্রেম। দুজনেরই দুজনকে ভালো লেগেছিল। প্রেমের টানে বাড়িতে না জানিয়েই তৎকালীন সময়ে ৩০ হাজার টাকা ধার করে প্রেয়সীর কাছে মেলবোর্নে ছুটে যান তিনি।

তিন মাস একে অপরের সঙ্গে কাটিয়েছিলেন। মারিনার তরফ থেকে বিয়ের প্রস্তাবও এসেছিল। তবে বিয়ে করে সারা জীবনের জন্য অস্ট্রেলিয়াতেই থেকে যেতে মন চায়নি তার। পরিবার-পরিজনদের টানে তাই আবার দেশের মাটিতে ফেরা। এরপর পরিবারবর্গের চাপেই বিবাহ করতে বাধ্য হন ৩০ বছরের সেই যুবক। স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে সংসার করছিলেন এতদিন।

সম্প্রতি তার স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। ছেলেমেয়েরাও নিজের নিজের জীবনে ব্যস্ত। এতদিন পড়ে বৃদ্ধের পুরনো সঙ্গিনী ফের ফিরে এলেন তার জীবনে। দীর্ঘ ৫০ বছর পর ফের অস্ট্রেলিয়া থেকে মারিনার চিঠি পেয়েছেন বৃদ্ধ। প্রাক্তন প্রেমিকার চিঠি পেয়ে ফের আরেকবার নস্টালজিক হয়ে পড়েছেন ৮২ বছরের এই যুবক।