সকালের দিকে এ’ক’দ’ম খি’দে নেই? অনেক কা’র’ণ’ই থা’ক’তে পারে! জেনে নিন

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী ভারী খাবার খেতে হয়। শরীর গঠনের জন্য এবং শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় শক্তিলাভের উদ্দেশ্যে হেভি ব্রেকফাস্ট জরুরি। কিন্তু সকালে যদি খিদেই না থাকে তাহলে? বেশ কারো কারোর ক্ষেত্রে এমনটা হয়েই থাকে যে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরেও খিদে পায় না। এমনটা কেন হয়? জানাচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর খিদে না পাওয়ার পেছনে অনেক কারণ থাকতে পারে। অনেক সময় রাতে বেশি প্রোটিন যুক্ত খাবার খেলে সকালে খিদে চলে যায়। রাতে অত্যধিক প্রোটিন কিংবা ফ্যাটযুক্ত খাবার খেলে সকালে খিদে না পাওয়াটাই স্বাভাবিক। আবার গভীর রাতে উঠে হালকা কিছু খেলেও সকালের দিকে আর খিদে নাও পেতে পারে।

খিদে না পাওয়ার আরেকটি কারণ হতে পারে অবসাদ বা উদ্বেগ। রাতে যদি অত্যধিক মানসিক অবসাদে ভুগে থাকেন বা উদ্বেগের মধ্যে রাত কাটিয়ে থাকেন তাহলে ও হরমোনের তারতম্যের কারণে সকালে খিদে নাও পেতে পারে। খিদে না পাওয়ার আরেকটি কারণ হতে পারে থাইরয়েডের সমস্যা। আপনি হয়তো জানেন না, অথচ আপনার শরীরে থাইরয়েডের সমস্যা রয়েছে। এমন ক্ষেত্রেও সকালে খিদে নাও পেতে পারে।

আবার সকালে উঠে খিদে না পাওয়া আরেকটি কারণ হতে পারে বয়স জনিত সমস্যা। বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে হজম শক্তি কমে আসে। আর ঠিক সেই কারণেই খিদে কমে যেতে থাকে। তবে খিদে কমে যাওয়া কোনো বড় অসুখেরও ইঙ্গিত দেয়। তাই হঠাৎ করেই যদি খিদে কমে আসে সে ক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।