খুব একটা ভালো নেই অপু, উদ্বিগ্ন চিকিৎসকেরা, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে রাখা হতে পারে ভেন্টিলেশনে

বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে উদ্বেগ কাটছেনা চিকিৎসকদের। করোনা আক্রান্ত হয়ে গত মঙ্গলবার চিকিৎসার প্রয়োজনে বেলভিউ নার্সিং হোমে ভর্তি করতে হয়েছিল তাকে। তারপর থেকে অবশ্য সুস্থই ছিলেন তিনি। তবে শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকেই বর্ষীয়ান অভিনেতার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। তাই আইটিইউতে ভর্তি করতে হয়েছিল তাকে। রবিবারের রাতের পর থেকেই তাঁর শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি ঘটতে থাকে।

বর্ষীয়ান অভিনেতা স্বাস্থ্য সম্পর্কে উদ্বেগে ভুগছেন তার পরিবার পরিজন এবং অনুরাগীরা। তাদের উদ্বেগ আরো বাড়িয়ে চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন, শুক্রবারের পর থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি বৈ উন্নতি হয়নি। অন্যান্য সমস্যার পাশাপাশি বর্তমানে স্নায়বিক সমস্যায় ভুগছেন তিনি। শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়ায় বাইরে থেকে রক্ত দিতে হচ্ছে তাকে। রবিবার রাত পর্যন্ত প্রতি মিনিটে ১৬ লিটার রক্ত দিতে হয়েছে তাকে।

তবে সোমবার অবস্থার একটু উন্নতি হয়েছে বলে জানা গেছে। সোমবার সকাল থেকে তাকে প্রতি মিনিটে ১০ লিটার করে রক্ত দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। তবে বর্তমানে ঘোরের মধ্যে রয়েছেন অভিনেতা। কোনোভাবেই তার আচ্ছন্ন ভাব কাটছে না। চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন, ঘোরের মধ্যেই বিড়বিড় করে ভুল বকছেন তিনি। পাশাপাশি, হাত-পা ছুঁড়ছেন। চিকিৎসকের বক্তব্য অনুসারে, তার এই আচ্ছন্ন ভাব না কাটলে অচিরেই তাকে ভেন্টিলেশনে দিতে হতে পারে।

বেলভিউ নার্সিংহোমের ১০জন চিকিৎসক এবং কলকাতার অন্য সরকারি বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে আরও ৬ জন চিকিৎসকসহ মোট ১৬ জন চিকিৎসকের একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন বর্ষীয়ান অভিনেতা চিকিৎসা চালানো হচ্ছে। চিকিৎসকেরা অবশ্য জানিয়েছেন, তার প্রতিটি অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সঠিকভাবে কাজ করছে।তাই উপযুক্ত চিকিৎসার মাধ্যমে শীঘ্রই তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশা করছেন চিকিৎসকরা।