কথা নয়, কাজ সব কিছু প্রমাণ করবে: ভোটের আগে বার্তা সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া অভিনেতা যশের

ইতিমধ্যেই ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে গেছে যতই সময় এগোচ্ছে ততোই রাজনৈতিক চর্চার উত্তেজনার পারদ বেড়েই চলেছে, প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে নানান নেতাদের নানান কথা ভাইরাল হচ্ছে ট্রল হচ্ছে। তা আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পারছি। তেমনই একটি ভাইরাল হওয়া ভিডিও হচ্ছে, যশ দাশগুপ্ত যোগদান করেছেন বিজেপিতে, সেই নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে শিরোনামে উঠে এসেছেন , তাকে উড়িয়ে দিয়ে তিনি এখন যে মন্তব্যটি করেছেন তার হল ,কথা নয় কাজই প্রমাণ দেবে ,এই কথাটি হয়তো অনেক নেতা-মন্ত্রীদের মুখে শোনা যায় । কিন্তু আদতে ভোটের সময় পরবর্তী সময়ে আর তাদের কোন কথার দাম থাকেনা এবং তাদের কোনো প্রতিশ্রুতি র দাম থাকেনা তা জনসাধারণ জানেন ।

তাই একটি প্রচলিত প্রবাদ এই সূত্রে উঠে আসে, যে যায় লংকায় সেই হয় রাবণ – এ কথাটি অনেকেই জানেন এবং রাজনীতির ক্ষেত্রে হয়তো এটি খুবই প্রযোজ্য একটি প্রবাদ ।যাই হোক ইতিমধ্যে যশ দাশগুপ্ত বিজেপির দলের হেভিওয়েট নেতা অমিত সাহার সাথেও দেখা-সাক্ষাৎ সেরে ফেলেছেন।

যশ দাশগুপ্ত তার বক্তব্য জানান যে , তিনি দেশের যুবসমাজের জন্য কাজ করতে চান । যাতে দেশে কর্মসংস্থান বেশি করে হয় সেটির দিকে নজর দেয়া প্রয়োজন ,যাতে কাজের জন্য ঘরে র ছেলেকে অন্য রাজ্যে পারিনা দিতে হয় সেটির দিকে নজর দেয়া বিশেষত দরকার এবং সেই দিকটি তিনি কাজ করতে চান। তবে এই ধরনের কিছু প্রতিশ্রুতি আমরা জনসাধারণের ভোটের আগে বিভিন্ন নেতা-মন্ত্রীদের মুখ থেকে শুনে থাকি। বাস্তবের মাটিতে তা আদৌ কতটা সফল হয় ,সেটা পরবর্তী সময়ে বোঝা যাবে। তার সময়ের অপেক্ষা বহু প্রচলিত একটি প্রবাদ আছে “তেত্রিশ বছর কেটে গেল কেউ কথা রাখেনি কেউ কথা রাখে না” কথাটি বর্তমান সময় দাঁড়িয়ে খুবই প্রযোজ্য।