বাবা হওয়ার সুখবর দিয়েও ট্রো’লে’র শি’কা’র নোবেল, নিজের উ’প’র করতে পারছেন না ভ’র’সা!

বাংলাদেশের বিখ্যাত গায়ক নোবেল। এপার বাংলা ওপার বাংলা মিলিয়ে মিশিয়ে তার অনুরাগীর সংখ্যা কিছু কম নয়। তবে অনুরাগীদের পাশাপাশি নোবেলের কিন্তু সমালোচকের সংখ্যাও কিছু কম নয়। এর প্রধান কারণ তার নিজস্ব কিছু বিতর্কিত মন্তব্য এবং কীর্তিকলাপ। নোবেল সর্বদা কোন না কোনভাবে বিতর্কের শিখরে থেকেই যান। এর আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা হোক বা বাংলাদেশের রকস্টার জেমসকে নিয়ে কুৎসিত মন্তব্যের জেরে অথবা বাংলাদেশের নামকরা সাংবাদিককে বাড়ি থেকে তুলে আনার হুমকি দিয়েও বরাবর সুনামের তুলনায় দুর্নাম কুড়িয়েছেন নোবেল।

এবার সোশ্যাল মিডিয়া একটি সুখবর শোনাতে গিয়েও বিতর্কের সম্মুখীন হতে হলো বাংলাদেশি গায়ক মইনুল আহসান নোবেলকে। বাবা হতে চলেছেন নোবেল। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই তথ্যটি অনুরাগীদের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে চেয়েছিলেন তিনি। তবে এই খবর শেয়ার করতে গিয়েই কার্যত একটি ভুল করে বসলেন নোবেল। যে কারণে নেট মাধ্যমে হাসির পাত্র হতে হয়েছে তাকে। সেখানে তিনি লিখেছেন, “আলহামদুলিল্লাহ। হয়তো আমরা মা-বাবা হতে চলেছি”।

এই খবরে “হয়তো” কথাটির মধ্যে এই মজার রসদ খুঁজে নিয়েছে নেটিজেনরা। এই খুশির খবর শুনেও সকলের প্রশ্ন তুলছেন, হয়তো আবার কি? একজন প্রশ্ন করেছেন, নোবেল কি নিজেই নিশ্চিত নন যে তিনি বাবা হতে চলেছেন? তবে নোবেলের শুভানুধ্যায়ীদের মধ্যে অনেকেই আবার এইবার তাকে শুধরে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। প্রসঙ্গত, বাংলাদেশি গায়ক নোবেলকে নিয়ে নেটদুনিয়ায় বাসিন্দারা বরাবর চর্চা করে থাকেন।

সম্প্রতি বাংলাদেশের একটি মানসিক হাসপাতালের বাইরে দেখা যায় নোবেলকে। সেখানে দেখা যায় তিনি হাসপাতালে কয়েকজন রোগীর সঙ্গে গলা মিলিয়ে “আমার সোনার বাংলা” গান গাইছেন। যা দেখে নেটিজেনদের মনে সন্দেহ হয়, নোবেলের কি তাহলে মাথার সমস্যা দেখা দিল? যদিও সেই প্রশ্নের জবাব দেননি নোবেল।