চীন সীমান্ত দিয়ে বিগত ৬ মাসে কেউ অনুপ্রবেশ করেননি, সংসদে স্পষ্ট জানিয়ে দিলো কেন্দ্র

এবার সংসদে এক লিখিত প্রশ্নের জবাব দেওয়া হল, আর সেখানেই স্পষ্ট হয়ে গেলো গত ৬ মাসের মধ্যে যে চীনা সীমান্ত দিয়ে কেউ বাহ্রতে অনুপ্রবেশ করার চেষ্ট আ করে নি। স্বরাষ্ট প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই স্পষ্ট জানিয়েছেন যে, চিনা সীমান্ত দিয়ে কেউ গত৬ মাসের মধ্যে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেনি। তবে হ্যা, তাই বলে যে চিনা সেনা তাদের আগ্রাসান দেখানো বন্ধ করে দিয়েছে সেটা কিন্তু নয়। তারা জমি দখলের চেষ্টা করলেও, অনুপ্রবেশ করে নি। কারণ এই দুটি কাজ স্বাভাবিক ভাবেই আলাদা।

দেখা যাচ্ছিল গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই ভারত ও চিনের মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরী হয়েছিল। যার ফলেই সীমানায় তৈরী হয়েছিল উত্তেজনা ও কড়া নিরাপত্তা। তবে চিন একতরফা ভাবে সীমান্তে স্থিতাবস্থা বদল করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু পুরো সফল না হলেও কিছুটা সফল হয়েছে। এবার এই নিয়েই প্রশ্ন করে বিজেপির সাংসদ অনিল আগারোয়াল। তার এই প্রশ্নের জবাবেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছেন, গত ৬ মাসের মধ্যে সীমান্তে একটি অনুপ্রবেশের ঘটনাও ঘটে নি। তবে হ্যা অনুপ্রবেশ ও আগ্রাসনের সংজ্ঞা টা আলাদা। তাই ঐ দুটোকে গুলিয়ে ফেললে চলবে না কোনোভাবেই।

তবে বিরোধীরা এখনও প্রশ্ন করেই যাচ্ছে যে, চিনা সেনারা কি ভারতের জমি দখল করে আছে? ইতিমধ্যে বিরোধী শিবির লাদাখ নিয়ে সংসদে আলোচনা চেয়েছে, যেটা কেন্দ্র রাজি হয় নি।এদিকে চিনারা আরও বেশী করে উত্তেজনা সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে প্যাংগং লেকের ধারে। সূত্রের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, এই মাসেই নাকি চিনা সেনারা প্যাংগং হ্রদের উত্তর পাড়ে ভারতের সেনার থেকে দূরত্ব কমানোর চেষ্টা করছে, যার ফলে উত্তেজনা আরও বৃদ্ধি হবে বলেই মনে করা হচ্ছে, তবে ভারতীয় সেনার বাধা পেয়ে কিছুটা পিছিয়ে গেলেও নাকি, দুই দেশের মধ্যে ১০০-২০০ রাউন্ড গুলি পর্যন্ত চলেছে বলেই জানা যাচ্ছে, তবে সরকার এই নিয়ে কিছু জানায় নি।।