গঙ্গা নদীর তীরবর্তী এলাকায় উদ্ধার নীলগাই, লকডাউন উপেক্ষা করে ভিড় জনতার

নীলগাই উদ্ধার গঙ্গা নদীর তীর থেকে। উদ্ধার হওয়া নীলগাই দেখতে হাজারো মানুষের ভিড় জমলো গ্রামে। সোমবার সকালে মানিকচক থানার ডোমহাট হাড্ডাটোলা গ্রামে গঙ্গা নদীর ধারে স্থানীয়দের নজরে আসে নীলগাইটি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় মানিকচক থানার পুলিশ।স্থানীয়দের সহযোগিতায় নিলগাইটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। পরে পুলিশ বনদপ্তরের হাতে তুলে দেয় নীলগাইটিকে। স্থানীয় সূত্রে জানাগিয়েছে, এদিন নদীর তীরে আহত অবস্থায় নীলগাইটি ছোটাছুটি করছিল।

স্থানীয়দের নজর পড়তেই নীলগাইটি উদ্ধারে চেষ্টা করেন গ্রামবাসীরা। পুলিশ পৌঁছে যৌথভাবে নদীর জল থেকে পাকড়াও করে নীলগাইটিকে।নদী পথে বিহারের দিক থেকে এই এলাকায় এসে পৌঁছায় নীলগাইটি বলে অনুমান স্থানীয়দের। এর আগেও এমন ঘটনা নজরে এসেছে। স্থানীয় বাসিন্দা দেবু মন্ডল এবং সুবল মণ্ডল জানান, সোমবার সকালে গঙ্গা নদীর তীরে দেখা যায় ওই নীলগাইটিকে। এরপর ওই নিলগাইটিকে উদ্ধার করে মানিকচক থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

ফরেস্ট অফিসার ইন্দ্রজিত দাস জানান, নীলগাইটি সম্ভবত বিহারের দিক থেকে গঙ্গায় ভেসে মানিকচক এলাকায় চলে আসে। অসুস্থ অবস্থায় রয়েছে নীলগাইটি। প্রথমে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে। আপাতত তাকে রাখা হবে আদিনা ডিয়ার পার্কে। এরপর সুস্থ হলে যথাস্থানে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে।পুলিশ জানিয়েছে, এই নীলগাইটি আহত অবস্থায় রয়েছে। পরে বনদপ্তরের আধিকারিকরা পৌঁছে নীলগাইটি উদ্ধার করে নিয়ে যায়। মানিকচক থানার ওসি গৌতম চৌধুরী সহ পুলিশকর্মীরা উদ্ধার হওয়া নিলগাইটিকে বনদপ্তরের হাতে তুলে দেন।