ক’রো’নার নতুন স্ট্রেনে ফের আতঙ্ক! বর্ষবরণে জমায়েত রুখতে দিল্লিতে নাইট কার্ফু ঘোষণা

প্রতীক ছবি

ফের করোনার নতুন আতঙ্ক নে, ইতিমধ্যে ব্রিটেন থেকে করোনার নতুন মিউটেন্ট ভারতে প্রবেশ করেছে।ব্রিটেনের ফেরত অনেক যাত্রী শরীরেই পাওয়া গেছে করুন আর এই নতুন ভাইরাস নিমিষের মধ্যে দেশের বাকি মানুষের মধ্যেও বিস্তার লাভ করতে পারে। ভাই ইতিমধ্যে সমস্ত রাজ্যের তরফ থেকে নেওয়া হচ্ছে সর্তকতা। বিশেষ করে মধ্যপ্রদেশ, কর্ণাটক,মহারাষ্ট্র এবং তার সাথে যুক্ত হলো রাজধানী দিল্লি। এইসব রাজ্যে ইতিমধ্যে জারি করা হয়েছে নাইট কার্ফু।

বিশেষ করে বছরের শেষ ও শুরুর হই-হুল্লোড়ের কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। মোটকথা রাতের দিকে অযথা মানুষের জমায়েত বন্ধ করতেই এই করার সিদ্ধান্ত।ইতিমধ্যে দিল্লির মোকাবিলা দপ্তর এর তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ৩১ ডিসেম্বর থেকে ১লা জানুয়ারি পর্যন্ত এই নাইট কার্ফু জারি থাকবে। রাত ১১ টা থেকে ভোর ছয়টা পর্যন্ত এই নাইট কার্ফু জারি থাকবে, আর এর মধ্যেই যদি কোন জমায়েত অনুষ্ঠান এমনকি একসাথে ৫ জনের বেশি দেখা যায় তাহলেই নেওয়া হবে আইনত কড়া ব্যবস্থা।

ইতিমধ্যেই ব্রিটেনের নতুন করণা মিউটেন্ট এ দেশে প্রবেশ করেছে ব্রিটেনের ফেরত যাত্রীদের দ্বারা, আর তারা ব্রিটেন থেকে এসেই অজান্তেই বিভিন্ন বাসে ট্রেনে চেপে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন। এই খবর পেয়ে দিল্লির কোভিদ কেয়ার সেন্টারে তরফ থেকে তাদের সবাইকেই আইসোলেশন এ রাখা হয়েছে। বিশেষ করে দিল্লির মোকাবিলা দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে এই নতুন মিউটেন্ট যা কিনা খুব সহজেই রোগ বিস্তার করতে সম্ভব।

তাই নতুন বছরে মেলামেশা বন্ধ না করলে নতুন বছরে জমায়েত কম না করলে করোনা সংক্রমণ আরো ঝড়ের গতিতে বৃদ্ধি পাবে।ইতিমধ্যে সেই সমস্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের সম্পূর্ণভাবে চিহ্নিত করন করা সম্ভব হয়নি। বিভিন্ন জায়গায় ৫০ শতাংশের বেশি মানুষের প্রবেশ নিষেধ, সেটা শপিংমল বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট থেকে শুরু করে সব জায়গায়।