নতুন বছরে নতুন খবর, যে কোনো নেটওয়ার্কে আনলিমিটেড কলের সুবিধা দিচ্ছে জিও

দেশের সকল টেলিকম সংস্থাগুলির মধ্যে থেকে বর্তমানে দেশের বাজারে প্রথম স্থানে রয়েছে মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স জিও কোম্পানি। জনপ্রিয়তার নিরিখে প্রথম থেকেই শীর্ষ স্থানে রয়েছে জিও। অন্যান্য টেলিকম সংস্থার তুলনায় কম মূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা, ফ্রী কলিংয়ের সুযোগ দিয়ে এতদিন স্মার্ট ফোন ব্যবহারকারীদের আকর্ষণ করেছে জিও। তবে সাম্প্রতিক কৃষক আন্দোলন কিন্তু জিওর বাজারেও বেশ নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে অনেকেই মোদি ঘনিষ্ঠ পুঁজিপতি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান জিওর উপর ক্ষোভ উগরে দিয়ে “বয়কট জিও”র স্লোগান দিচ্ছেন। জিও সাবস্ক্রিপশন ছাড়ছেন, জিও টাওয়ার ভাঙচুর করছেন উত্তেজিত জনতা! এমতাবস্থায় গ্রাহক ফিরে পেতে আবারও পুরনো পন্থা বেছে নিল জিও। ২০২১ সালের ১লা জানুয়ারি থেকেই রিলায়েন্স জিও থেকে যে কোনও নেটওয়ার্কে আনলিমিটেড ফ্রি কলের সুবিধা ফিরে পাবেন গ্রাহক।

উল্লেখ্য, প্রথম প্রথম জিও টু জিও এবং জিও টু নন-জিও নেটওয়ার্কে ফ্রি কলিংয়ের সুবিধা দিচ্ছিল জিও। জিওর জনপ্রিয়তা এতে এক ধাক্কায় অনেকখানি বেড়ে যায়। কিন্তু পরবর্তীতে TRAI-এর নতুন নিয়মের কারণে ইন্টারকানেক্ট ইউসেজ চার্জ দেওয়া বাধ্যতামূলক হয়ে যাওয়ায় জিও থেকে অন্য নেটওয়ার্কে কলিংয়ের সুবিধা পেতে গ্রাহকদের থেকে অতিরিক্ত মূল্য নিতে শুরু করে জিও। তখন অবশ্য জিওর প্রতিষ্ঠাতা মুকেশ আম্বানি বলেছিলেন, TRAI-এর নিয়ম বদলালে তিনি আবার গ্রাহকদের আনলিমিটেড কলিংয়ের সুবিধা দেবেন।

ট্রাইয়ের নতুন নিয়ম মতো বিগত বেশ কয়েক মাস ধরেই গ্রাহকদের অন্য নেটওয়ার্কে কল করতে টাকা খরচ করতে হতো। তবে শুক্রবার থেকে ট্রাইয়ের নিয়মে পরিবর্তন আসাতে জিও কর্তা আবারও পুরনো অবস্থানে ফিরে গেলেন। চলতি বছরের শেষ দিনেই গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে সেই সুখবর শোনালেন মুকেশ আম্বানি। গ্রাহকদের জন্য এটি নিঃসন্দেহেই জিওর তরফ থেকে নতুন বছরের উপহার।