সুশান্ত মৃত্যু কাণ্ডে নয়া মোড়, এবার তদন্তে ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি

সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে প্রথমে নেমেছিল মুম্বাই পুলিশ, তার পর বিহার পুলিশ। এরপর জনতারঅবিরাম প্রচেষ্টার ফলে সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে গিয়ে পৌঁছায় সিবিআইয়ের হাতে। মাদকচক্র খতিয়ে দেখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয় এনসিবি কে। সুশান্তের ব্যাংক একাউন্ট থেকে অর্থের গোলমাল বিষয়টি দেখার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছিল ইডি কে। এবার সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে সঙ্গে যুক্ত হতে চলেছেন ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা।

ইতিমধ্যেই রিয়া চক্রবর্তী এবং তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কে মাদক চক্র জড়িত থাকার অপরাধে গ্রেফতার করেছে নারকটিকস কন্ত্রল বিউরো। রিয়া এবং ছবি ছাড়াও গ্রেফতার হয়েছে স্যামুয়েল মিরান্ডা, দীপেশ সাওয়ান্ত।১৪ দিন পর বুধবার বোম্বে হাইকোর্ট এ রিয়া এবং সৌভিকের জামিনের আবেদনের শুনানি ছিল।কিন্তু প্রবল বৃষ্টির কারণে মুম্বাইয়ে সমস্ত সরকারি অফিসে ছুটি ঘোষণা করে দিয়েছে সরকার। তাই আজ আদালতে সমস্ত কাজকর্ম স্থগিত থাকার কারণে ইতিমধ্যেই জামিন পাচ্ছেন না রিয়া চক্রবর্তী এবং তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী।

ইতিমধ্যেই শোনা যাচ্ছে যে, এসিপি আধিকারিকদের জেরার মুখে পড়তে চলেছে একাধিক বলিউড অভিনেতা অভিনেত্রী। এর মধ্যেই উঠে এসেছে দীপিকা পাডুকন, দিয়া মির্জা এবং নম্রতা শিরোদকর এর নাম। এনসিবির জেরার মুখে একাধিক বলিউড তারকা নামিয়েছেন ট্যালেন্ট মানেজমেন্ট সংস্থা KWAN এর কর্মী জয়া সাহা। আজ দীপিকা পাডুকোন এর ম্যানেজার কারিশমা প্রকাশকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। শ্রুতি মোদি, KWAN এর অন্যতম দিরেক্টর তথা নীনা গুপ্তা প্রাক্তন জামাই মধু মন্টেনা কেও ডেকেছেন এনসিবি।

ইতিমধ্যেই এনসিবি আধিকারিকদের জিজ্ঞাসাবাদে জয়া সাহা জানিয়েছে, তিনি শ্রদ্ধা কাপুর কি নেশা করার জন্য সিবিডি অয়েল জোগাড় করে দিয়েছিলেন। এই মাদকচক্রের সঙ্গে পাকিস্তানের যোগাযোগের সম্ভাবনাও পুরোপুরি উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। মাদকচক্র ক্ষেত্রে তদন্ত করতে নেমে অনেক বড় বড় মানুষদের নাম জড়িয়ে পড়ছে যেভাবে,তাই সুশান্তের মামলার তদন্তভার জাতীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে তুলে দিতে পারে কেন্দ্র সরকার।