বিরাট সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের, যৌনকর্মীদের “ওয়ার্কিং লেডি” হিসেবে সম্মানিত করলো জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের

যৌনকর্মীদের “ওয়ার্কিং লেডি” হিসেবে সম্মানিত করলো জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। সম্প্রতি, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে যৌনকর্মীদের জন্য এমনই এক অভিনব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। যার ফলে এখন থেকে যৌনকর্মীরাও তাদের প্রাপ্য সম্মান এবং কেন্দ্রে তরফ থেকে সকল সুযোগ-সুবিধা পাবেন। সম্প্রতি, মানবাধিকার কমিশনের তরফ থেকে এমনই একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

কমিশনের তরফ থেকে, করোনা মহামারীর পরিস্থিতিতে নারীর অধিকার সম্পর্কিত ১১ পৃষ্ঠার একটি অ্যাডভাইজারি প্রকাশ করা হয়েছে। সেই অ্যাডভাইজারি তৈরি মহিলাদের কর্মের তালিকায় যৌনকর্মীদের “ওয়ার্কিং লেডি” হিসেবে চিহ্নিত করে তাদের জন্যও বেশ কিছু সুপারিশ তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এই অ্যাডভাইজারি গঠনের আগে দেশজুড়ে ১৯টি সংস্থার সমন্বয়ে একটি বিশেষ সংগঠন “জাতীয় যৌন কর্মীদের জাতীয় নেটওয়ার্ক” তথা এনএনএসডাব্লু গড়ে তোলা হয়।

এই কমিটিতে যৌনকর্মীদের জন্য নির্ধারিত কিছু সুপারিশ জমা করা হয়। সুপারিশ অনুযায়ী, প্রতিটি রাজ্যের সরকারের তরফ থেকে সে রাজ্যের যৌনকর্মীদের ত্রান এবং যথাযথ সহায়তা প্রদান করা উচিত। পাশাপাশি যে সকল যৌনকর্মীর কাছে নিজস্ব রেশন কার্ড অথবা অন্যান্য নাগরিক প্রমাণপত্র নেই, তাদের পাবলিক ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম তথা পিডিএসসহ অন্যান্য কল্যাণমূলক ব্যবস্থা সংক্রান্ত অস্থায়ী নথি প্রদান করা যেতে পারে।

পাশাপাশি, যৌনকর্মীরা যদি কোনভাবে গার্হস্থ্য হিংসার শিকার হন তাহলে তাদের সেই অত্যাচারের বিরুদ্ধে রিপোর্ট লেখার অনুমতি প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও বর্তমান মহামারীর পরিস্থিতিতে যৌনকর্মীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার খাতিরে বিনামূল্যে তাদের টেস্ট এবং চিকিৎসা করানোর পাশাপাশিপ্রতিটি এর আকার যৌনকর্মীদের সাবান স্যানিটাইজার এবং মাস্ক প্রদান করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।