মুকুলকে আ’ট’কা’তে আসরে শুভেন্দু, ব’ড়ো কর্মসূচি নি’তে চ’লে’ছে’ন নন্দীগ্রামের বিধায়ক

দলবদল প্রসঙ্গে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। সম্প্রতি বিজেপি শিবির থেকে তৃণমূল ঘরে ফিরে গিয়েছেন বিজেপির এককালীন সর্বভারতীয় সভাপতি মুকুল রায়। প্রসঙ্গত, মুকুল রায়ের দলত্যাগের দুই দিন আগেই তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চ্যালেঞ্জ করে শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, “আমি এখন বিরোধী দলনেতা, তৃণমূল এবার দল ভাঙিয়ে দেখাক!”

এভাবেই কার্যত তৃণমূলের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তবুও মুকুল রায় দল ত্যাগ করলেন। স্বভাবতই বিষয়টি এখন বিজেপির প্রেস্টিজ ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমতাবস্থায় দলত্যাগ বিরোধী আইন নিয়ে লড়াইয়ের ময়দানে নামছেন শুভেন্দু অধিকারী। আজ বিকেল চারটে নাগাদ রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে একটি বৈঠকের বসতে চলেছেন শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু অধিকারী আজ একটি টুইট বার্তায় এমনটা জানিয়েছেন। যদিও দলত্যাগ বিরোধী আইন নিয়ে রাজ্যপালের কিছুই করণীয় নেই। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বিধানসভার স্পিকার। লোকসভা এবং রাজ্যসভার স্পিকার এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারেন। রাজ্যপাল কিংবা রাষ্ট্রপতি, এক্ষেত্রে কিছুই করতে পারেন না। তবুও বিষয়টিকে সর্বভারতীয় স্তরে তুলে ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপি।

বিজেপির অভিপ্রায়, এই বিষয়টিকে দিয়ে যেন সর্বভারতীয় স্তরে নিন্দা হয়। মুকুল রায়ের দল পরিত্যাগ করা এবং বিজেপি বিধায়কের ভাঙ্গানো শুভেন্দু অধিকারী মোটেই ভাল ভাবে নিচ্ছেন না। সেই কারণেই রাজ্যপালের কাছে নালিশ জানাতে যাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী। এভাবেই কার্যত প্রতিবাদ শুরু করতে চলেছে বিজেপি। নেতৃত্ব দিচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী।